Breaking News

উত্তম কুমারের বায়োপিকে সাবিত্রী দেবীর ভূমিকায় অভিনয় করতে চলেছেন রাণীমা দিতিপ্রিয়া রায়!

নিজস্ব প্রতিবেদন: খুব অল্প সময়ের মধ্যেই অভিনয় জগতে নাম অর্জন করে নিয়েছেন দিতিপ্রিয়া রায়। অসাধারণ অভিনয় দক্ষতা এবং সৌন্দর্য দিয়ে সহজেই দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন তিনি। ধীরে ধীরে ছোট-পর্দা থেকে বড় প-র্দায় এগো-চ্ছেন দিতিপ্রিয়া। কিছুদিন আগেই অভিযাত্রী চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল তাকে। এরইমধ্যে আবারও উত্তম কুমারের বায়োপিকে তার দর্শন মিলতে চলেছে।

এই চলচ্চিত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা যাবে দিতিপ্রিয়াকে এমনটাই খবর পাওয়া গিয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, অনেকদিন জ-ল্পনা-কল্প-নার পর শেষ পর্যন্ত মহা-নায়ক এর বায়ো-পিক তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে।ইতিমধ্যেই প্রতিটি চরিত্রে অভিনয় করার জন্য টলিউডের সবথেকে জনপ্রিয় শিল্পীদের বেছে নেওয়া হচ্ছে। এরমধ্যে উত্তম কুমারের ভূমিকায় অভিনয় করতে চলেছেন কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়।

এই ছবিতে তুলে ধরা হবে বাস্তব জীবনের উত্তম-সুচিত্রা জুটির রসায়ন। তাই সুচিত্রার চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। এছাড়াও উত্তম কুমারের স্ত্রীর চরিত্রে আমরা দেখতে পারবো শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়কে। উত্তমকুমারের তরফে বরাবর থেকেই সাবিত্রী দেবীর একতরফা ভালোবাসা ছিল বলে মনে করা হয়। আর এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী সাবিত্রী দেবীর চরিত্রেই অভিনয় করতে যাচ্ছেন দিতিপ্রিয়া।এই চরিত্রটি যে তার অভিনয় জীবনের অন্যতম চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

এই জনপ্রিয় তারকারা ছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে দেখা যাবে শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়,ঋত্বিক ঘটক প্রমূখ বিশিষ্ট অভিনেতাদের।মহানায়কের জীবনযাত্রা পর্দার জগতে দেখতে আগ্রহী অনেক অনুরাগীরাই। পরিচালক অতনু বসুর প্রচেষ্টায় এই ছবিটি তৈরি হতে চলেছে। এর আগেও অভিনয় জগতকে “আ-ত্মজা”র মত ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি।উত্তম কুমারের এই বায়োপিক ছবিটি যে অনুরাগীদের জন্য অত্যন্ত বড় একটি উপহার তাতে কোন সন্দেহ নেই। স্বয়ং পরিচালক অতনু বসুও এক ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকারে ঠিক একই কথা বলেছেন।

Check Also

হে’রে গেলেন তারকা প্রার্থী সায়ন্তিকা, হেরে গিয়ে কেঁ’দে চোখ ভা’সালেন অভিনেত্রী , তু’মু-ল ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ২০২১ এর হা-ই-ভো-ল্টেজ বিধানসভা ভোটের ফলাফল ইতিমধ্যে প্রকাশিত হয়ে গেছে এবং ক্ষ-ম-তায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *