Breaking News

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা পাবেন কিনা, চেক করুন লিস্টে!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি মানুষের জন্য কিছু না কিছু প্রকল্প নিয়ে এসেছে এবং সেই সমস্ত প্রকল্প গু-লির আওয়াজ দিয়ে সাধারন মানুষরা যথেষ্টভাবে উপকৃত হয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য একটি প্রকল্প হল স্বাস্থ্যসাথী । এই প্রকল্পের মাধ্যমে সাধারণ মানুষরা বিনামূল্যে সরকারের তরফ থেকে যে কোনো সরকারি বা বেসরকারি হাসপাতালে চিকিত্সা করাতে পারছে যার ফলে চিকিৎসাজনিত কোন অভাব তাদের মধ্যে আর দেখা যাচ্ছে না ।

তবে সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লক্ষী ভান্ডার বলে আর একটি প্রকল্প জারি করেছে যার মাধ্যমে তিনি জানিয়েছেন যে বাড়ির মহিলারা ৫০০ টাকা এবং ১০০০ টাকা করে প্রতিমাসে পাবেন । কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে কারা কারা পাবেন আর কারা কারা পাবেন না । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা অনুযায়ী যে সমস্ত রাজ্যবাসীর স্বাস্থ্য সাথী কার্ড রয়েছে তারা একমাত্র আবেদন করতে পারবে এই লক্ষী ভান্ডার এর জন্য ।

যাদের স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নেই তারা লক্ষী ভান্ডার জন্য আবেদন করতে পারবে না দরকার হলে পরবর্তী সেপ্টেম্বর অক্টোবর মাসে যে দুয়ারে ক্যাম্প কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে সেখানে আপনার স্বাস্থ্য সাথী কার্ড করিয়ে নিতে পারেন বা নাম নথিভুক্ত করতে পারেন । তারপরে আবার আপনারা এর জন্য আবেদন করতে পারেন । এবার আপনি কিভাবে জানলেন যে আপনার নাম অনলাইনে নথিভুক্ত রয়েছে কিনা সেটা জানার জন্য এই পদ্ধতিটি অবলম্বন করতে হব । প্রথমে গুগলে গিয়ে আপনাকে স্বাস্থ্য সাথী লিখতে হবে । তারপর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে আপনার সামনে খুলে যাবে ।

তার মধ্যে ক্লিক করতে হবে তারপর স্ক্রিনের দিকে উপরে তিনটি লাইন থাকবে । সেখানে ক্লিক করে ক্লিক করতে হবে এবং তারপর আপনাকে ফাইন্ড ইওর নেম অপশন এ ক্লিক করতে হবে । এবং সেখানে আপনার মোবাইল নাম্বার চাওয়া হবে যে মোবাইল নাম্বারটা আপনার স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর সাথে যুক্ত রয়েছে । সেই মোবাইল নাম্বারটা দেওয়ার পর আপনাকে জিজ্ঞাসা করা হবে যে আপনি এই অনুসন্ধান টিকার জন্য করতে চাইছেন নিজের জন্য নাকি অন্য কারোর জন্য । যেমনটা হবে তেমন সিলেট করবেন ।

তারপর আপনাকে ডিস্ট্রিক্ট মিউনিসিপালিটি এবং কিসের ভিত্তিতে এ আপনি করেছিলেন অর্থাৎ আধার কার্ড রেশন কার্ড নাকি অন্য কোন মাধ্যম দিয়ে সেই নাম্বারটি কার্ডের নাম্বারটি আপনাকে প্রদান করতে হবে ।।এবং তারপর সাবমিট করলেই সম্পূর্ণ লিস্ট আপনার সামনে খুলে যাবে যে আপনি দেখতে পারবেন যে আপনার বাড়ির নাম অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন হয়েছে কিনা ।

About 24Ghanta News

Check Also

শচীনের স্ত্রী শচীনের থেকে বড় ৬ বছরের। জেনে নিন তাদের প্রেমকাহিনীর গোপন তথ্য!

নিজস্ব প্রতিবেদন:শচীন তেন্ডুলকর অর্থাৎ ক্রিকেট জগতের কিংবদন্তি কে চেনেন না এরকম মানুষ হয়তো খুব কমই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *