Breaking News

বৃদ্ধ বাবা-মাকে বাড়ি থেকে বা’র করে অচেনা রাস্তায় ফে-লে চলে আসলেন ছেলে, ভাইরাল হলো ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:পৃথিবীতে বাবা মায়ের থেকে বড় আপন আর কেউ হয়না।ছোটবেলা থেকে জন্ম হওয়ার পর নিজেদের সন্তানকে সমস্ত রকম দায়িত্ব পালন করে মানুষ করে থাকেন একজন বাবা মা। সমস্ত রকম কষ্ট,ত্যাগ স্বীকার করেও কখনো সন্তানের চোখে জল আসতে দেন না তারা। আর্থিক অনটন থাকলেও নিজেরা না খেয়ে সন্তানদের খাওয়ান।

একজন মা যেমন গর্ভ য-ন্ত্র-ণা সহ্য করে লালন— পালন করে তোলেন সন্তানকে; ঠিক তেমনভাবেই একজন বাবা মাথার ঘাম পায়ে ফেলে সন্তানের মানুষ হওয়াতে মুখ্য ভূমিকা গ্রহণ করেন। কিন্তু সবথেকে দুঃখের বিষয় কি জানেন? অনেক সময় এত কিছু করার পরেও সন্তানেরা প্রকৃত মানুষ হয়ে উঠতে পারেন না।

শুধুমাত্র পুঁথিগত শিক্ষা অর্জন করলে একজন মানুষের মধ্যে বুদ্ধি এবং সঠিক ব্যবহার আসেনা। উপযুক্ত মানসিক বিকাশ এবং শিক্ষা-দীক্ষার মাধ্যমেই একজন মানুষের উন্নতি সম্ভব। কিন্তু আমাদের পৃথিবীতে এই ধরনের মানুষ খুব কম রয়েছেন। বর্তমান যুগে বিভিন্ন জায়গায় বৃদ্ধাশ্রমের প্রয়োজনীয়তা দেখা যায়। কারণ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই নিজেদের বড় বাড়িতে বাবা মা এর প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন না সন্তানেরা। এতদিন পর্যন্ত যারা কষ্টে লালন পালন করলেন তাদেরকেই একপ্রকার অবাঞ্ছিত মনে হয়।

সম্প্রতি নেট দুনিয়ায় এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যা খুব সহজেই যেকোনো মানুষের চোখের জল এনে দিতে বাধ্য হবে। এই ভাইরাল ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একজন যুবক গাড়ি করে তার বাবা-মাকে নিয়ে এসে অচেনা রাস্তায় হঠাৎ করেই নামিয়ে দেন।এরপর ধীরে ধীরে তাদের জামাকাপড় সহ ব্যাগ রাস্তায় ছুড়ে ফেলে সেখান থেকে গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে যান।

বোঝাই যাচ্ছে বাবা-মায়ের দায়িত্বভার বহন করতে চান না তিনি। ফলস্বরূপ জন্মদাতাদের ফেলে দেওয়ার জন্য এই অচেনা রাস্তাকে বেছে নিয়েছেন। যদিও ছোটবেলার মতোই ছেলের কথা রেখেছেন বাবা-মা।কোনরকম উচ্চবাচ্য না করেই গাড়ি থেকে নেমে গিয়ে চোখের জল মুছতে মুছতে ব্যাগ নিয়ে অচেনা পথে হাঁটতে শুরু করেন এই বয়স্ক দম্পতি।

ভিডিওর শেষ অংশে দেখা যায়,ওই বৃদ্ধ দম্পতি এক বৃদ্ধাশ্রমে প্রবেশ করে একে অপরের কাঁধে ভর করে চোখের জল ফেলতে থাকেন।হয়তো বা অতীত দিনের সন্তানের সাথে মুহূর্তের স্মৃতিচারণ করে কাঁদছিলেন তারা। আশেপাশের অনেক মানুষ তাদের সহানুভূতি প্রকাশ করতে থাকেন; কিন্তু এই সহানুভূতি তাদের কোনরকম ভাবেই কাজে লাগবে না তা বেশ স্পষ্ট।

প্রসঙ্গত এই ভিডিওটি দেখার পর প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে! ছোটবেলা থেকে এত কষ্টে পালন করার পরেও এই সন্তানেরা কিভাবে নিজেদের জন্মদাতাদের এই প্রতিদান দিয়েছেন?আমাদের এই প্রতিবেদনটি যদি আপনার একটুও ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই নিজেদের বাবা-মায়ের সঠিকভাবে যত্ন নেবেন এবং তাদেরকে প্রয়োজনানুসারে ভালোবাসা দেবেন।

About 24Ghanta News

Check Also

আধার কার্ড ও প্রাইভেট চাকরির বিষয়ে 2 টি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করল কেন্দ্র! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-আমাদের জীবনে আধার কার্ডের গুরুত্ব কতখানি তা আমরা প্রত্যেকেই জানতে পারি যদি আমরা নতুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *