Breaking News

পশ্চিম বাংলার জনপ্রিয় দশটি ভ্রমণ স্থান, যে জায়গার নাম অনেকেই জানেন না, রইলো ভিডিও সহ!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- জীবন যেন একটা খোলা বই। এবং যারা বাইরে কোনদিন পর্যটনের যায়নি অর্থাৎ বাইরের পরিবেশে ঘুরে দেখেনি তারা শুধুমাত্র বইয়ের একটি মাত্র পাতা পড়েছে । সম্পূর্ণ বই পড়তে বাকি থেকে গেছে তাদের । জীবন মানেই তো উপভোগ করা । একঘেয়েমি কাজের চাপ কে পাশে রেখে কখনো কখনো ব্যাগপত্র নিয়ে বেরিয়ে পড়া যেতেই পারে প্রকৃতির উদ্দেশ্যে। কেউ ভালোবাসে পাহাড় কেউ ভালোবাসে সমুদ্র আবার কেউ ভালোবাসে জ-ঙ্গল । সব ধরনের পরিবেশ কিন্তু রয়েছে আমাদের এই পশ্চিমবঙ্গে ।কথাতে আছে যদি পশ্চিমবঙ্গ একবার ঘুরে দেখা যায় তাহলে গোটা পৃথিবী ঘোরা হবে ।

এখানে শুধুমাত্র মরুভূমি ছাড়া বাকি সমস্ত কিছুর আমেজ উপভোগ করতে পারবেন আপনি। আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনাদেরকে বলবোই পশ্চিমবঙ্গে এমন বেশ কয়েকটি জায়গা যেগু-লি যাতায়াতের জন্য খুব স্বল্প মাত্রায় খরচ হয় তার পাশাপাশি পর্যটন শিল্পে এই সমস্ত জায়গা গুলি ব্যাপক সুখ্যাতি রয়েছে। আসুন দেখেনি সেই তালিকায় কোন কোন জায়গা গুলির নাম রয়েছে। প্রথমেই বলব মুর্শিদাবাদ এর কথা। মুর্শিদাবাদ যে কারণে জন্য বিখ্যাত সেটি হল হাজারদুয়ারি ।

তার পাশাপাশি ইমামবাড়া ও অন্যান্য দর্শনীয় স্থানগুলি এখানে রয়েছে । প্রতি বছর কয়েক হাজার মানুষ ভিড় করে শুধুমাত্র হাজারদুয়ারি দেখব বলে । তার পাশাপাশি এমনটা বলা হয় যদি ইতিহাস জানতে চাও তাহলে একবার মুর্শিদাবাদ ঘুরে এসো ।কারণ এই জেলার প্রতিটি আ-নাচে-কা-নাচে ছ-ড়িয়ে আছে ইতিহাসের গন্ধ। দ্বিতীয় যে জায়গাটি সেটি হলো বীরভূমে শান্তিনিকেতন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের খুব কাছের একটি জায়গা ছিল এটি । শুধুমাত্র রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলে নয় তার পাশাপাশি এখানকার পরিবেশ এবং আবহাওয়া অন্যান্য জেলা থেকে সম্পূর্ণ আলাদা ।

বিশ্বভারতী এখানকার সব থেকে জনপ্রিয় জায়গা । প্রতিবছর বসন্ত উৎসবের সময় প্রায় কয়েক লক্ষ মানুষের ভিড় হয় এখানে ।তার পাশাপাশি বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে আসেন দেশ-বিদেশ থেকে মানুষজন এরা । কাজেই আপনি অনুমান করতে পারছেন যে এটি কতটা জনপ্রিয় পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে। এরপর যে জায়গাটি কথা বলব সেটি হল কোচবিহার । কোচ রাজাদের বাসস্থান ছিল এটি । বলা হয় এটি নাকি রাজাদের শহর।

কোচবিহারের সবচেয়ে দর্শনীয় স্থান হল কোচবিহার রাজবাড়ি ঢেলে সাজানো এই শহর দেখতে প্রতিবছর হাজার হাজার মানুষের ভিড় হয়। নদীয়া জেলা এই পশ্চিমবঙ্গ অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র । কারণ এখানে সবথেকে জনপ্রিয় জায়গাটি দর্শনীয় স্থান কি হলো ইসকন মন্দির । তার পাশাপাশি মায়াপুর অন্য মাত্রায় জনপ্রিয়তা পেয়েছে গোটা পৃথিবীর কাছে। এই নদীয়া জেলা তে বসবাসকারী মানুষদের মুখে আপনি শুনলে বুঝতে পারবেন যে প্রতিবছর কি ব্যা-পক পরিমাণে মানুষজন আছে শুধুমাত্র নদীয়াজেলা কে উপভোগ করতে ।

কাজে আপনি এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে বুঝতে পারছেন যে পশ্চিমবঙ্গ অন্যান্য বাকি সকল রাজ্যের থেকে সম্পূর্ণ রকম ভাবে আলাদা যা ভারতকে গোটা বিশ্ব দরবারে তুলে ধরার জন্য এবং জনপ্রিয় করে তোলার জন্য যথেষ্ট। এছাড়া দার্জিলিং সুন্দরবন কালিংপং থেকে শুরু করে অর্থাৎ আপনি যদি ওটা পশ্চিমবঙ্গের মানচিত্র দেখেন তাহলে এমনটা বলতেই পারেন যে পাহাড় থেকে মোহনা সব জায়গায় পশ্চিমবঙ্গের পর্যটন কেন্দ্র গড়ে উঠেছে ।

About 24Ghanta News

Check Also

সিজারে বাচ্চা নেওয়ার অপর নাম নীরব মৃ-ত্যু (মিস করবেন না স্বামী স্ত্রী দুজনেই পড়ুন)!!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-সাধারণত একটি ভ্রূ-ণ ধীরে ধীরে মাতৃগর্ভে বড় হয়ে উঠতে সময় লাগে দশ মাস দশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *