Breaking News

প্রবল বৃষ্টির সময় পুকুর থেকে বাড়ির উঠোনে লাফিয়ে উঠে আসলো প্রচুর কই মাছ, যুবকের কই মাছ ধরার ভিডিও ভাইরাল!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা জানি যে পুকুরে মধ্যে বিভিন্ন ধরনের মাছের চাষ করে থাকে অনেকে। বলাবাহুল্য মাছচাষিরা এবং সেই মাছ তারা রপ্তানি করা শহরের মধ্যে যার ফলে আমরা শহরে থেকেও মাছ খাবার আনন্দ উপভোগ করতে পারি। কিন্তু কখনো কখনো যদি পুকুরের জল বৃষ্টির জলে পরিপূর্ণ হয়ে যায় তখন ঘটনাটি একটু অন্যরকম ঘটে অর্থাৎ যেভাবে মাছচাষিরা জা-ল ফেলে মাছ ধরে তখন সে ভাবে মাছ ধরার প্রয়োজন পড়ে না একেবারে জলের স্রোতে ভেসে আসে মাছ। অ-বাক হচ্ছেন এমন টা কি কখনো ঘুরতে দেখেননি আপনি কিন্তু বাস্তবে এমন টা দেখা গেছে ।

আমরা আগেই বলেছি যে সোশ্যাল মিডিয়া নতুন করে কিছু বলার অবকাশ রাখে নি আমাদের কাছে। সে তার কাজের মাধ্যমে সব কিছু প্রমাণ করে দিয়েছে । আট থেকে আশি সকল প্রজন্মের মানুষেরাই কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার প্রতি আ-সক্ত হয়ে পড়ছে ধীরে ধীরে । যার ফলে প্রতিনিয়ত বাড়ছে জনপ্রিয়তা এবং এই জনপ্রিয়তার নিরিখে টে-ক্কা দিতে ম-রিয়া হয়ে উঠছে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম গু-লি ।

সম্প্রতি একটি ভিডিও ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে সেখানে দেখানো হয়েছে একটি গ্রামের দৃশ্য । গ্রামের পুকুর বৃষ্টির জলে পরিপূর্ণ হয়ে গেছে এবং পুকুরের জল রীতিমতো কানায় কানায় । বলতে পারেন উপচে পড়ার মতন অবস্থান এবং একসময় বৃষ্টির জলে পুকুরের জল ছাপিয়ে যায় । যেহেতু সেই পুকুরটি গ্রামের লোকাল এর খুব কাছাকাছি ছিল তাই সে জল লোকাল এর ভেতর দিয়ে প্রবেশ করতে শুরু করে এতে অসুবিধা থেকে লাভ হয়েছিল সেখানকার এলাকার মানুষ গুলো ।

কারন সে পুকুরের জলে থাকে ছোট ছোট মাছ গু-লি বাড়ির উঠোনে মধ্যে চলাফেরা করছিল যা দেখতে পারে লোভ সামলাতে পারেনি সেখানকার এলাকাবাসীরা তাই সেই বৃষ্টির মধ্যে দরকার হলে ছাতা নিয়ে বাড়ির উঠোন থেকে মাছ ধরতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে এলাকাবাসী । সত্যি তো পুকুরের মাছ যদি বাড়ির উঠোনের সামনে এসে উপস্থিত হয় তাহলে সে মাছ কে ধরবে না এমন কেউ অন্তত । ইতিমধ্যে যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়েছে সেই ভিডিও এবং অনেককে শেয়ার করে রেখেছেন ।

About 24Ghanta News

Check Also

সিজারে বাচ্চা নেওয়ার অপর নাম নীরব মৃ-ত্যু (মিস করবেন না স্বামী স্ত্রী দুজনেই পড়ুন)!!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-সাধারণত একটি ভ্রূ-ণ ধীরে ধীরে মাতৃগর্ভে বড় হয়ে উঠতে সময় লাগে দশ মাস দশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *