সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া সিংহলি গান ‘মেনিকে মাগে হিথে’ পৌঁছে গেল মার্কিন মুলুকে! ইংরেজি ভাষায় প্রকাশিত হলো এই গান।

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া সিংহলি গান ‘মেনিকে মাগে হিথে’ পৌঁছে গেল মার্কিন মুলুকে! ইংরেজি ভাষায় প্রকাশিত হলো এই গান।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-বেশ কিছুদিন আগে একটি গান ব্যা-প-ক পরিমাণে দখল করে রেখেছিল খবরের শিরোনাম গানটির নাম হচ্ছে মানিকে মাগে হিতে। এই গানের ভাষা কিংবা অর্থ কোনটাই বোঝা না গেলেও ব্যা-প-ক পরিমাণে ভাইরাল হয়েছিল কিন্তু নেট মাধ্যমে। পাড়ার পুজো মণ্ডপ থেকে শুরু করে প্রতিটি স্মার্ট ফোনের কলার টিউন ,রিংটনে এমনকি ইনস্টাগ্রামের ভিডিওতে দেখা পাওয়া যাচ্ছিল এই গানের।বিভিন্ন সেলিব্রিটিরা এই গানের সাথে ভিডিও করেছেন ।পাশাপাশি সাধারণ মানুষ তো রয়েছেই ।তবে পরবর্তী ক্ষেত্রে জানা যায় এই গানটি সিংহলি ভাষার একটি গান এবং যিনি এই গানটি গেয়েছেন তার নাম ইয়হানির।তবে এই গানকে অনুকরণ করে বাজারে এলো আবার একটা নতুন গান।

ভাষা না বুঝতে পারলেও আক্ষরিক অর্থ বোঝা হয়ে যাবে না । কিন্তু তবুও মুখে মুখে শোনা যাচ্ছে সকলের এই গানটি । মাঝেমধ্যে আবার দখল করছে খবরের শিরোনাম । আলোচনার মূল কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠছে মানিকে মাগে হিতে । যদিও এই গানের এই ভাষাকে নিয়ে অনেক সময় অনেক কৌতুহল ভিডিও প্রকাশিত হয়ে গেছে ইতিমধ্যে ।কিন্তু তার সাথে সাথে ভাল দিকও ঘটেছে অনেকগু-লি । যেমন এই গানের সাথে মেলবন্ধন করে একটি বাংলা গান প্রকাশিত হয়েছিল যে গানটি অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি লোকগীতি ।

গানটির নাম হচ্ছে তোমার ঘরে বসত করে কয়জনা । মূলত এই দুইটি গানের মেলবন্ধন ঘটিয়ে গানটিকে প্রকাশ করা হয়েছিল নেট মাধ্যমে যা মূল গানের সাথে সাথে ভাইরাল হতে শুরু করে । তবে সম্প্রতি ভাইরাল হলো অন্য একটি গান ।
সিংহলি ভাষার এই গানটির বলিউড-টলিউড ছাপিয়ে এবার চলে গেছে মার্কিন মুলুকে।

একদম ঠিক শুনেছেন। আমরা জানি যে এই গানের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলা হিন্দি তামিল তেলেগু ভাষার গানের রিমেক করা হলেও ইংরেজি ভাষার কোন গান এখনো পর্যন্ত ছিল না ।তবে সেই অভাব পূরণ করে দিলেন মার্কিন গায়ক এরিক হেনরি হাইনরিখস। । ইংরেজি এবং সিংহলী ভাষায় এই গানটি করে বেশ চর্চিত এই গায়ক। ইয়োহানির গানটিকে একটু আলাদাভাবে পরিবেশন করেছেন তিনি। গানের কথা পরিবর্তিত থাকলেও সুর একই রয়েছে এই গানের।গানটি বেশ ভালো হয়ে পছন্দ হয়েছে সকলের তাই মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়েছে সাহেবের দুনিয়াতে।




Leave a Reply

Your email address will not be published.