গাছের গুঁড়ির মধ্যের গর্তের থেকে বেরিয়ে আসছে দলে দলে যুবক-যুবতী! তুমুল ভাইরাল হলো ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন মজাদার ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়। এর মধ্যে বিভিন্ন হাসির পোস্ট থেকে শুরু করে মিম, এছাড়া অনেক নাচ বা গানের ভিডিও রয়েছে। লাইক বা শেয়ারের উপর নির্ভর করে বিচার করা হয় ভিডিওগুলি কতটা ভাইরাল।অনেক ক্ষেত্রেই লাইক বা শেয়ারের সংখ্যা এতটাই হয় যে সোশ্যাল মিডিয়া আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে থাকে ভিডিওগুলি।

লকডাউনে ঘর বন্দী অবস্থায় থেকে আমাদের এই সোশ্যাল মিডিয়া প্রতিনিয়ত বাইরের বিভিন্ন ঘটনাবলী সম্পর্কে জানতে সাহায্য করছে।তাই আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনেও আমরা এমন একটি ভাইরাল ভিডিওর কথা জেনে নেব যা যে কোন মানুষকে হাসতে বাধ্য করবে।

জানিয়ে রাখি, দর্শকও কম নয় এই সোশ্যাল মিডিয়ায়। ইন্টারনেট ব্যবহার করতে মাত্র কিছু এমবি নেট এর প্রয়োজন তাই হয়তো সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। ভাইরাল ভিডিও গুলির মধ্যে অনেক ক্ষেত্রেই এগুলি এডিটেড হয়। তবে ডিজিটাল দুনিয়ায় সেগুলির সত্যতা যাচাই করা এমন কিছু কঠিন কাজ নয়।

সম্প্রতি ফেসবুকে এমন একটি ভিডিও লক্ষ্য করা গিয়েছে যা দেখে হাসতে হাসতে পেটে খিল ধরার জোগাড় হবে যেকোনো মানুষের। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একটি গাছের কোটর থেকে ছেলে মেয়ে সহ প্রায় ১৪ জন একই সাথে পরপর বেরিয়ে আসছেন। অবাক করা বিষয় এই যে একটি গাছের কোটরে একসাথে কতটা জায়গা থাকতে পারে যে সেখানে একসাথে পূর্নবয়স্ক ১৪ জন মানুষ থাকতে পারে!যদিও প্রথমে সেখানে মাত্র দুজন ছেলেমেয়েকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গিয়েছিল।

দর্শকরা ভেবেছিলেন তারা হয়তো কোনো প্রেমিক প্রেমিকা।কিন্তু পরবর্তীতে এতজনকে গাছের কোটর থেকে বেরিয়ে আসতে দেখে অনেকেই অবাক হন।ভিডিওটি দেখে অনেকেই এর সত্যতা সম্পর্কে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন কমেন্ট বক্সে। কিছু কুরুচিকর মন্তব্যও লক্ষ্য করা গেছে।

আবার অনেকে এমন বলেছেন যে নিশ্চয়ই অন্যপ্রান্তে কোন ফাঁকা জায়গা আছে।যা দিয়ে ওই মানুষ গুলি সেখানে ঢুকে অপরপ্রান্ত দিয়ে বেরিয়ে আসছে। যাইহোক সত্যতা যাচাই আপাতত না হলেও ভিডিওটি চরম ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button