বাইক বা স্কুটি নিয়ে রাস্তায় বেরিয়ে আর হতে হবে না হেন-স্থার শি-কার! কড়া নির্দেশ দিলো রাজ্য! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন: পুজোর মরসুমে বাইক আরোহীদের জন্য সুখবর!এবার থেকে আর রাস্তায় চলাকালীন সিভিক ভলেন্টিয়ারদের হাতে হে-নস্থা হতে হবে না বাইক আরোহীদের।কোন অসুবিধা না থাকা সত্ত্বেও অনেক সময় নাকা চে-কিংয়ের পা-ল্লায় পড়ে আরোহীদের নানান ধরনের সম-স্যার মুখোমুখি হতে হয়। যার ফলস্বরুপ কাজে দেরি হওয়া সত্বেও দাঁড়িয়ে থাকতে হয় আরোহীদের। কিন্তু এবার থেকে আর এই সমস্যার মুখোমুখি হবেন না তারা।

সম্প্রতি লালবাজার পুলিশের তরফ থেকে এক প্রকার নতুন নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। এই নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী, শুধুমাত্র নাকা চেকিং করতে পারবেন সিভিক ভলেন্টিয়ার রা।কোনরকম কাগজপত্র দেখার জন্য বাইক আরোহীদের দাঁড় করিয়ে রাখতে পারবেন না তারা।

কারণ নির্দেশিকায় বলা হয়েছে,”যে সমস্ত পুলিশকর্মীদের নথিপত্র পরীক্ষার অনুমোদন নেই তারা সেই দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না”। প্রসঙ্গত এর আগে বেশ কয়েক জায়গা থেকে সিভিক ভলেন্টিয়ার দের হাতে বাইক আরোহীদের হেনস্থার খবর পাওয়া গিয়েছে। এমনকি অনেক ক্ষেত্রেই ঘটনা মারপিট পর্যন্ত পৌঁছে গিয়েছে।

তবে সাব-ইন্সপেক্টর বা সার্জেন্টরা খুব সহজেই গাড়ি বা বাইকের কাগজপত্র পরীক্ষা করতে পারবেন। তাদের ক্ষেত্রে কোনো রকম বাধা দেওয়া হয়নি। এই নির্দেশিকায় আরও জানানো হয়েছে যে, যদি কোন সিভিক ভলেন্টিয়ার কাগজপত্র পরীক্ষা করে দেখতে চান বা বাইক আরোহীদের হেনস্থা করেন সেক্ষেত্রে তার বি-রুদ্ধে অভি-যোগ জমা পড়লে ক-ড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button