গ্রামবাসীদের অতিরিক্ত উৎসাহে বি-ষাক্ত কোবরার হাতে প্রাণ গেল মুরগির! মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সাপের যে কোন প্রজাতি তা বিষধর হোক বা বিষহীন মানুষকে ভয়ভী-ত করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। আমাদের চোখের সামনে আমরা অনেকবার সাপকে নিয়ে ঘটে চলা বিভিন্ন ভয়-ঙ্কর ঘটনা লক্ষ্য করেছি। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এরকমই একটি ঘটনা সম্পর্কে আলোচনা করব। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের জীবনের একটি অন্যতম অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন ধরনের ফটো এবং ভিডিও ভাইরাল হতে দেখতে পাই। ভাইরাল এই ভিডিও গুলো খুব সহজেই মানব মনে জায়গা দখল করে নেয়।

যুগের পরিবর্তনের সাথে সাথে মানুষের চাহিদার অত্যধিক পরিবর্তন ঘটেছে।পূর্ববর্তী সময়ে মানুষ টেলিভিশন এবং অন্যান্য যোগাযোগ মাধ্যমে বিশেষভাবে আকৃষ্ট থাকলেও বর্তমানে তার রূপান্তরিত হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।গবেষণার মাধ্যমে দেখা গিয়েছে তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে ক্রমাগত সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার এর চাহিদা বেড়েই চলেছে। বিগত কয়েক বছরে ভারতবর্ষে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় কয়েক কোটি বৃদ্ধি পেয়েছে।এর মধ্যে যেমন অল্প বয়সী তরুন— তরুনীরা রয়েছেন ঠিক তেমনভাবেই রয়েছেন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষেরা।

দিন কয়েক আগে নেট মাধ্যমের একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি গ্রামের মধ্যে ভয়-ঙ্কর কোবরা সাপ ঢুকে গিয়েছে। বি-ষাক্ত এই সাপটিকে দেখার জন্য ভিড় জমিয়েছেন প্রায় সমস্ত গ্রামবাসীরা। এর পর গ্রামবাসীদের মধ্যে কেউ সাপটিকে উদ্ধার করার জন্য উদ্ধারকারীদের খবর দেন। উদ্ধারকারী যুবকদের এসে প্রথমে সাপটিকে ধরতে গিয়ে বেশ বে-গ পেতে হয়।দেখা যায় শুধুমাত্র বিষাক্ত কোবরা সাপ নয় তার বেশ কয়েকটি বাচ্চাও সেখানে লুকিয়ে ছিল। ভিডিওর প্রায় শেষ অংশে দেখা যায় উদ্ধারকারী যুবকদের একজন সাপটির সম্পর্কে গ্রামবাসীদের বিশেষ বিবরণ দিতে থাকেন। তবে মাত্র এই কিছুসময়ের মধ্যেই গ্রামবাসীদের অতিরিক্ত উৎসাহের ফলে বি-ষাক্ত কোবরা সাপটির হাতে প্রাণ যায় একটি মুরগির।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি কোবরা সাপ পৃথিবীর অন্যতম বি-ষাক্ত সরীসৃপ গুলির মধ্যে রয়েছে।এই সাপের বি-ষ খুব সহজেই প্রাণীর স্নায়ুতন্ত্র কে অকেজো করে মানুষকে মৃত্যুর মুখে নিয়ে চলে যেতে পারে। তাই অবশ্যই এই সাপ কোন প্রাণীকে কাম-ড়ালে তার দ্রুত চিকিৎসার চেষ্টা করা উচিত। ইউটিউবে ভাইরাল এই ভিডিওটি চাইলে আপনারাও দেখে আসতে পারেন। ইতিমধ্যেই প্রায় কয়েক মিলিয়ন দর্শকসংখ্যা অতিক্রম করেছে এই অসাধারণ ভিডিওটি।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button