কেন দুবাই বিমানবন্দর বিশ্বের মধ্যে সবথেকে সেরা? কারন জানলে অবাক হবেন! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-কিছু বছর আগে অব্দি দুবাই ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট মাসিক ৪০ রুপি করে বেতন পেত । কিন্তু এখন তার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় ২৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের । কিন্তু কেন ? কি এমন হলো যার ফলে পাল্টে গেল তার পুরো ভৌগোলিক এবং অর্থনৈতিক চিত্র । তা জানবো মূলত আমরা আজকের এই প্রতিবেদন ।

দুবাই সম্পর্কে জানার আগ্রহ আমাদের কমবেশি প্রত্যেকের থেকে থাকে । তার পাশাপাশি অনেকের স্বপ্নের শহর হতে পারে ।তাই বাকি জীবনটা দুবাই গিয়ে কাটানোর স্বপ্ন দেখে অনেকে সেই মতো চলে নানান ধরনের সংগ্রাম পরিশ্রম বা। উপার্জনের চেষ্টা ।

৪৪০ রুপি মাসিক বেতন নিয়ে ইম্পেরিয়াল এয়ারলাইনস দুবাই বিমানবন্দর ব্যবহার করতে শুরু করেন । কিন্তু ধীরে ধীরে তার উন্নত হতে থাকে । তখনও পর্যন্ত অর্থাৎ তার দুই দশক পরেও কিন্তু দুবাই নিজস্ব কোন এয়ারলাইন্স ছিল না ।এর পরে দুবাই নিজস্ব এয়ারলাইন্স শুরু করে ।তার সাথে সাথে কয়েক বছরের মধ্যেই আরো চারটি এয়ারলাইন্সের মালিক হয়ে যায় এই দুবাই কিন্তু এই চারটি এয়ারলাইন্স এর উপর ভিত্তি করে কিন্তু দুবাই এয়ারপোর্ট বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় এয়ারপোর্টে পরিণত হয়নি । প্রতিনিয়ত এয়ারপোর্টকে সুন্দরভাবে সাজিয়ে তোলার আপ্রাণ চেষ্টা করে চলে বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয় এই দুবাই এয়ারপোর্টে ।

এমনটা মনে করা হচ্ছে যে প্রতিদিন প্রায় ১২০০ ফ্লাইট কে হ্যান্ডেল করে দুবাই এয়ারপোর্ট । তার পাশাপাশি আপনাকে উন্নত পরিষেবার জন্য এখানে প্রায় এক লক্ষ স্থায়ী কর্মচারীর রয়েছে যা গোটা দুবাইয়ের জনসংখ্যা ২১ শতাংশ অর্থাৎ ২১ শতাংশ কর্মরত রয়েছে এই এয়ারপোর্টে ।

সপ্তাহের শেষে এই দুবাই এয়ারপোর্ট প্রায় সাড়ে আট হাজার ফ্লাইট কে হ্যান্ডেল করেন । এখানে তিনটি টার্মিনাল থাকা সত্ত্বেও এত সংখ্যক ফ্লাইট কে হ্যান্ডেল করতে বিপুল পরিমাণে চাপ নিতে হয় দুবাই এয়ারপোর্ট কে। এখানে দিনরাত কিছুই আপনি অনুভব করতে পারবেন না এমনকি আপনি জানলে অবাক হবেন যে পৃথিবীর ৬৩% শতাংশ মানুষ ট্রানজিট হিসেবে দুবাই এয়ারপোর্ট কে ব্যবহার করে ।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button