কে এই বান্ধবী, যার অন্তর্বাস ও স্যানিটারি প্যাডের মধ্যে লুকিয়ে ড্রাগস পাচার করছিলেন শাহরুখ-পুত্র আরিয়ান? রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে খবরের শিরোনাম দখল করে রয়েছে মাত্র একজন । তিনি হলেন শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ান খান । মুম্বাই থেকে গোয়া আমি একটি জাহাজে মধ্যরাতের পার্টি থেকে গ্রেফতার করা হয় তাকে । তার কারণ হচ্ছে সেই পার্টিতে ব্যবহার করা হচ্ছিল নিষিদ্ধ কিছু মাদক এবং এই মাদকচক্রের সাথে সরাসরি ভাবে যুক্ত ছিলেন শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ান খান । সেই ঘটনা জানতে পেরে সেই সমুদ্রে জাহাজে হানা দেয় এনসিবির কর্মকর্তারা ।।সেখান থেকে গ্রেফতার করে আরিয়ান খান কে। ।

তবে শুধুমাত্র যে আরিয়ান খান গ্রেফতার হয়েছে তেমন কিন্তু নয় তার সাথে সাথে সে পার্টিতে থাকা আরিয়ান খানের বন্ধু এবং বান্ধবী দের কেউ জেল হেফাজতে রাখা হয়েছে আপাতত । এবং তল্লাশি চালিয়ে এমনটা জানা গেছে যে আরিয়ান খান এর ব্যাগ থেকে কোনরকম কোন মাদক দ্রব্য না পাওয়া গেলেও তার লেন্সের বাক্স থেকে পাওয়া গিয়েছিল মাদকদ্রব্য । এমনকি তার বন্ধু-বান্ধবীদের জামার সেলাই ব্যাগের হাতল এর মধ্যে এবং মেয়েদের প্যাডের মধ্যে রাখা ছিল ড্রাগস । সেই সূত্রে প্রত্যেককে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তারা।

তবে আরিয়ান খানের সাথে সাথে এখন একটি চর্চিত নাম হচ্ছে মুনমুন ধামেচা । কে এই মুনমুন ? এমনটা জানা যাচ্ছে যে মুনমুনের স্যানিটারি প্যাডের মধ্যে লুকানো ছিল ড্রাগস । যদিও এনসিবির জেরা করার ফলে সে কথা স্বীকার করেছে মুনমুন । যেমনটা জানা যাচ্ছে ২৩ বছর বয়সী মুনমুন মূলত মডেলিং করেন। মধ্যপ্রদেশের এক বড় ব্যবসায়ী পরিবারের মেয়ে মুনমুন, তবে সেই ব্যবসায়ীর নাম কি সেটা এখনো জানা যায়নি।

মডেলিং ও ফটোশুটের দৌলতে বিটাউনে কমবেশি পরিচিত মুনমুন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও বেশ সক্রিয় । আপাতত তাকেও রাখা হয়েছে এনসিবির জেল হেফাজতে । ঘটনার খবর পেয়ে স্পেন থেকে শুটিং বন্ধ করে দেশে ফিরে আসেন শাহরুখ খান ।অপরদিকে গৌরী সেন একা হাতে আদালতের বিষয়টি দেখভাল করার দায়িত্ব নিয়েছেন ।এখন শুধু দেখার বিষয় যে আদালত রায় দেয় এদের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button