হাতির সাথে সেলফি তুলতে গিয়ে ঘটলো বি-প’ত্তি, সুর দিয়ে যুবতীর অ-ন্ত’র্বাস খুলে স্ত–ন খে-লো হাতি, তু-মু-ল ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন:ইন্টারনেটে আমরা প্রায়শই এমন অনেক ভিডিও ভাইরাল হতে দেখি যা হয়ত খালি চোখে কখনোই দেখা সম্ভব হয়না। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া খুব দ্রুত ইন্টারনেটের ব্যবহার মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়া বলতে আমরা বুঝি ফেসবুক, টুইটার, হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম, টুইটার, মেসেঞ্জার প্রভৃতি জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে।

এই অ্যাপ্লিকেশনগুলিতে একাউন্ট তৈরি করার মাধ্যমে খুব সহজেই মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ার সাথে যুক্ত হয়ে যান। এভাবে ক্রমাগত দিন প্রতিদিন এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে।আট থেকে আশি সকল বয়সের মানুষেরাই এখন নেট দুনিয়ায় বাসিন্দা।অনেকেই এই সোশ্যাল মিডিয়াকে নিজস্ব প্রতিভার বিকাশ ঘটানোর জন্য একটি প্লাটফর্ম হিসেবে ব্যবহার করেন।

এখানে বিভিন্ন দূরবর্তী অঞ্চলের ভিডিও থেকে শুরু করে নানান জিনিস আমরা দেখতে পারি।যেমন কিছুদিন আগেই ইন্টারনেটে একটি সত্তরোর্ধ্ব বয়স্ক মহিলার নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল।যেখানে বৃদ্ধাকে অসাধারণ জনপ্রিয় হিন্দি গানে দুর্দান্ত ভাবে নাচ করতে দেখা যাচ্ছিল। বৃদ্ধার নাচ দেখে একবারও বোঝা সম্ভবপর হয়নি যে তার বয়স 70 এর উপরে। বয়স যে শুধুমাত্র একটি সংখ্যা তিনি তা খুব সহজেই প্রমান করে দিয়েছেন।

সম্প্রতি নেটদুনিয়ায় ক্যামেরাবন্দি হয়েছে পশুপাখির কিছু আজব কান্ডকারখানা। এগুলি দেখার পর অনেক মানুষ আশ্চর্য হয়ে গিয়েছেন। যেমন দিন দুয়েক আগে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে কোন জায়গায় একটি পূর্ণবয়স্ক বিশালাকৃতির হাতি দাঁড়িয়ে রয়েছে। আচমকাই হাতিটিকে দেখতে পেয়ে তাকে আদর করার জন্য উপস্থিত হন অ-ন্ত-র্বাস পরিহিত একজন মহিলা।

তার শরীরে ওই অন্তর্বাস ছাড়া আর কিছু ছিল না। এমতাবস্তায় হাতিটিকে আদর করতে শুরু করলে হাতিটি হঠাৎ মহিলাটির স্ত-নে আ-ক্র-মণ করতে শুরু করে। বারংবার সেখানে কা-মড় দিয়ে মহি-লাটি-কে বিরক্ত করে হাতিটি। সম্ভবত ওই মহিলার এই পোশাক দেখে তাকে পছন্দ করতে পারেনি হাতিটি। যার ফলস্বরুপ সে এই কাণ্ড ঘটিয়েছে।নেটদুনিয়ায় ব্যাপকভাবে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে হাতির এই ভিডিওটি। অনেকেই এই ভিডিওটি দেখে নিজের বন্ধু-বান্ধবদের সাথে শেয়ার করেছেন।দর্শকদের সুবিধার্থে আমাদের এই প্রতিবেদনের সাথেই ভিডিওটি সংযুক্ত করা হলো।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button