ঘাড়, হাঁটু, আন্ডারআর্ম সহ গোপনাঙ্গের কালো দাগ দূর করতে চান? জেনে নিন দুর্দান্ত এই পদ্ধতি! রইল ভিডিওসহ বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-আমরা যদি প্রতিনিয়ত আমাদের শরীরের ত্বকের যত্ন নিয়ে থাকেন তাহলে কিন্তু তো কোনদিনই কাল দাগ এর সৃষ্টি হবে না ।। অপরিষ্কার হবেনা । কিন্তু রোজকার এই ব্যস্ততম জীবনযাত্রা তেমনটা হয়ে ওঠে না আমাদের পক্ষে ।। যার ফলে একাধিক সমস্যা দেখা যায় এবং এমন কিছু জায়গা রয়েছে শরীরে যেগুলিতে কালো দাগের সৃষ্টি হয় ।।যা পরবর্তী ক্ষেত্রে আপনাকে বিভিন্ন লজ্জাজনক পরিস্থিতিতে ফেলতে পারেন ।

যেমন ধরুন হাঁটুতে দাগ বগলের নিচে কালো দাগ ঘাড়ের কালো দাগ এমনকি বিকিনি লাইন অর্থাৎ গোপনাঙ্গের কালো দাগ সৃষ্টি হয় দীর্ঘদিন অপরিষ্কার থাকে । ফলে অনেক ধরনের পদ্ধতি অবলম্বন করেও কোনো রকম কোনো ফল হয়নি ।। সেটাও জানা আছে । তাই আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে যে পদ্ধতির কথা বলতে চলেছি সেটি পড়লে খুব অল্প দিনের মধ্যে গোপনাঙ্গের কালো দাগ পরিষ্কার করতে পারবেন পদ্ধতি টি কি ।

আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আমরা বলব কিভাবে বগলের নিচে কালো দাগ দূর করতে হয় বা গোপনাঙ্গে কালো দাগ কিভাবে দূর করতে হয় । তাহলে আসুন দেখে নেওয়া যাক এই কালো দাগ দূর করতে কি কি পদ্ধতি আমাদের অবলম্বন করতে হবে।

এই বডি প্যাক ব্যবহার করার আগে আপনাকে দুইটি কাজ করতে হবে ।প্রথমে যে জায়গাটি কালো হয়ে গেছে অর্থাৎ গলার নিচে বাবু বলে যে জায়গাটি কালো হয়ে গেছে সেই জায়গার মধ্যে প্রথমে কিছুটা পরিমাণ অলিভ অয়েল এবং লেবুর মিশ্রণ লাগিয়ে মেসেজ করতে হবে ।তারপর সেটাকে জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলতে হবে ।তারপর একটি বাটিতে আপনাকে এক চামচ নুন নিতে হবে এবং একটি অর্ধেক কেটে রাখা লেবু তার মধ্যে মিশিয়ে দিতে হবে। তারপর সেটি শরীরের কালো অংশে ভালো করে স্রাব করতে হবে ।এরপর জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে এবং সবশেষে এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করতে হবে।

এটি তৈরি করার জন্য একটি বাটিতে কিছুটা পরিমাণ আপনাকে কোলগেট নিতে হবে। তারপর নিতে হবে এক চামচ পরিমাণ নুন এবং কিছুটা লেবুর রস ও সামান্য পরিমাণ ক্লিনিক প্লাস শ্যাম্পু ।সমস্ত উপকরণ গুলি কি চামচের সাহায্যে ভালো করে মিশিয়ে বগলের নিচ কিংবা গলার নিচে যে অংশটি কালো হয়ে গেছে তার মধ্যে প্রয়োগ করতে হবে। বেশ কিছুক্ষণ লাগিয়ে রাখার পর জল দিয়ে ধুয়ে নিলে বা স্নান করলে হয়ে যাবে। মাত্র এক সপ্তাহ এই প্রক্রিয়াটি অবলম্বন করে দেখুন নিজের তফাৎ বুঝতে পারবেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button