ফর্সা ধবধবে, উজ্জ্বল ও দাগহীন ত্বক চান? রোজ রাতে এইভাবে ব্যবহার করুন ভিটামিন-ই ক্যাপসুল! রইল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- উৎসবের এই আনন্দে মেতে উঠেছি আমরা প্রত্যেকেই এবং প্রত্যেকে চাইছি যাতে নিজেকে অন্যদের তুলনায় আরো বেশি মাত্রায় আকর্ষণীয় করে তোলা যায়। পোশাক-আশাক পড়ার সাথে সাথে রূপচর্চা করাটা কিন্তু ভীষণ জরুরী এই দিনগুলিতে। এবং আপনি যদি এমনটা কখনও লক্ষ্য করেন যে আপনার শরীরে কালো দাগ ছোপ বয়সের ছাপ পড়তে শুরু করেছে তাহলে অতি অবশ্য এই প্রতিবেদনটি আপনার জন্য।

ত্বকের সমস্যা নতুন কিছু নয়। প্রতিনিয়ত ও যেভাবে আমরা রোদে ঘোরাঘুরি করছি বা কাজকর্ম করছি তাতে ত্বকের সমস্যা দেখা যাবে এমনটা খুব স্বাভাবিক কিন্তু এই সমস্যা থেকে সমাধান পাওয়ার উপায় রয়েছে ঘরোয়া পদ্ধতিতে। কিভাবে তৈরি করবেন এই ঘরোয়া রেমিডি আসুন দেখে নেওয়া যাক ।ত্বক পরিষ্কার করার ক্ষেত্রে প্রথমেই আপনাকে মুখ পরিষ্কার করতে হবে ।এবং এটি করার জন্য একটি বাটিতে আপনাকে কাঁচা দুধ নিতে হবে।

তার মধ্যে মিশিয়ে দিতে হবে এক চামচ লেবুর রস। তারপর একটি তুলোর বলের সাহায্যে সেটাকে মুখের মধ্যে ভাল করে প্রয়োগ করতে হবে ।কিছুক্ষণ রেখে দেওয়ার পর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। এরপর কালো দাগ ছোপ বয়সের ছাপ বা ব্রণ দূর করার জন্য যে উপাদানটি সবথেকে বেশি কার্যকরী সেটি হচ্ছে আলুর রস। তাই আপনাকে বাটিতে দুই থেকে তিন চামচ আলুর রস নিতে হবে।

তার মধ্যে মিশিয়ে দিতে হবে কিছুটা পরিমাণ মধু। এই মিশ্রণটি তুলোর একটি বলের সাহায্যে ভালো করে ত্বকের মধ্যে প্রয়োগ করতে হবে। এবং কিছুক্ষণ পর ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলতে হবে। এরপর যে বিষয়টি আপনাকে করতে হবে সেটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এরপর আপনাকে বাটিতে একটা কিংবা দুইটা ভিটামিন ই ক্যাপসুলের জেল নিতে হবে এই ভিটামিন ই ক্যাপসুল যে কোন মেডিকেল শপ আপনি অনায়াসে পেয়ে যাবেন।

তারপর তার মধ্যে যোগ করে দিতে হবে এক চামচ অ্যালোভেরা জেল। ২ টি উপকরণ কে ভাল করে মিশিয়ে ত্বকের মধ্যে নাইট ক্রিম হিসেবে আপনি ব্যবহার করতে পারেন। বা ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে দেওয়ার পরও ভাল করে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিতে ও পারেন আপনি। ঠিক এই তিনটি পদ্ধতি যদি আপনি এক সপ্তাহ ধরে করেন তাহলে নিজেই পার্থক্যটা বুঝতে পারবেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button