খালি গলায় অসাধারণ সুরে নেহা কক্করের গান গেয়ে ফের নেট দুনিয়ায় ভাইরাল গৃহবধূ সঞ্জনা! তুমুল ভাইরাল হল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-নিজের প্রতিভাকে কখনোই আটকে রাখা যায় না ।যেকোনো উপায়ে তাকে বহিঃপ্রকাশ করতে হয় কোনো না কোনো সময় ।এ ঘটনা চিত্র আমরা বহুবার দেখেছি ।হয়তো আগামী দিনে আরও বেশী মাত্রায় দেখবো। কারন এখনকার প্রজন্মের প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে প্রতিভাশালী মানুষের সংখ্যা। যেহেতু সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে তার পাশাপাশি রয়েছে বিভিন্ন রিয়েলিটি শোয়ের মঞ্চ তাই নিজেদের প্রতিভাকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরার এক সুবর্ণ সুযোগ থাকছে তাদের হাতে।

বেশ কিছুদিন আগে হিন্দি জগতের সারেগামাপাতে অডিশন দিতে এসেছিলেন সঞ্জনা ভাট নামক এক মহিলা । সঞ্জনা ভাট তার স্বামীর সাথে অডিশন দিতে এলে ও তার ছোট্ট পাঁচ মাসের শিশু কন্যা মাকে ছাড়া এক মুহূর্ত থাকতে পারেনি। তাই একপ্রকার বাধ্য হয়ে নিজের মেয়েকে কোলে নিয়েই জনপ্রিয় হিন্দি আও তুমি চাঁদ পে পে যায় গানটি পরিবেশন করেছিলেন মঞ্চে ।প্রাথমিকভাবে প্রতিযোগীকে এই অবস্থায় দেখে রীতিমত অবাক হয়ে গিয়েছিলেন বিচারকমণ্ডলী। পরবর্তী ক্ষেত্রে তার কণ্ঠস্বর শুনে রীতিমত ভাষা হারিয়ে ফেলেছে তারা। এমনকি এতটাই মন্ত্রমুগ্ধ হয়েছিল যে প্রত্যেকে উঠে হাততালি দিয়েছে তার পারফরম্যান্সের পর।

সূত্রে জানা যায় যে সঞ্জনা ছোটবেলা থেকেই বাবাকে হারিয়েছেন তাই মা এবং মামা দের কাছে খুব কষ্টের মানুষ হয়েছেন। তাই গান শেখার সুযোগ হয়নি তার পক্ষে। টিভিতে দেখে দেখেই সারেগামাপার মঞ্চে গান গাওয়ার ইচ্ছে জাগে তার। পরবর্তী ক্ষেত্রে তিনি বিয়ে করেন প্রেম করেন কিন্তু তার স্বামী কখনই চাইনি যে তার স্বপ্ন পূরণের বাধা হয়ে দাঁড়ায় কোন কিছু তাকে পড়াশোনা করিয়েছেন। এমনকি বর্তমানে দুটি সন্তানের মা তিনি ।

কিন্তু দ্বিতীয় সন্তান এতটাই ছোট যে মাকে ছাড়া বিন্দুমাত্র থাকতে পারে না। তাই তাকে কোলে নিয়েই স্বপ্ন পূরণের দিকে এগিয়ে চলেছে সঞ্জনা সম্প্রতি বেশ কিছুদিন আগে খালি গলায় নেহা কাক্কারের মাহি বে গানটি তিনি গিয়েছিলেন এবং তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে সেটি প্রকাশ করেছিলেন।সেই ভিডিও আবারো সামনে এসেছে। ইতিমধ্যেই সাড়ে তিন লাখেরও বেশি দর্শক ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন। ২৩ হাজার লাইক পড়েছে ভিডিওটিতে। কমেন্ট সেকশনে সকলেই ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন সঞ্জনাকে। তার গানের প্রশংসা করেছেন অনেকেই।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button