রান্নাঘরে রান্না করছিলেন যুবতী, হ-টাৎ গ্যাস সিলিন্ডারের পিছন থেকে বেরিয়ে এলো সা’প, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-সোশ্যাল মিডিয়া মানেই নিত্য-নতুন ভিডিওর সম্ভার। এই ভিডিওগুলি আমরা খুব সহজেই সামান্য কিছু ইন্টারনেট খরচ করে ঘরে বসেই যেকোনো মুহূর্তে দেখতে পারি।বর্তমানে প্রতিটি দিন পেরোনোর সাথে সাথেই সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার মানুষের মধ্যে আরও বেশি করে ছড়িয়ে পড়ছে।

এখানে নানান ধরনের ভিডিও প্রতিনিয়ত ভাইরাল হতে থাকে। যেমন অনেকেই বিভিন্ন নাচ-গানের ভিডিও শেয়ার করেন ঠিক তেমনভাবেই আবার অনেক শিক্ষনীয় ভিডিও এখানে দেখতে পাওয়া যায়।আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভয়াবহ ভিডিও নিয়ে আলোচনা করব। এই ভিডিওটি যে কোন মানুষকে অবাক করে দিতে বাধ্য হবে। তাহলে আসুন আর দেরি না করে শুরু করা যাক।

সাপের বিভিন্ন প্রজাতির কথা আমরা আগেই শুনেছি। এই সরীসৃপ কে ভ-য় পায় না এরকম মানুষ হয়তো খুব কমই আছেন।বলা হয় সাপ সম্মোহন ক্ষমতার সাহায্যে জীবজন্তুকে বশ করে শি-কা-র ধরে। এমনকি হিন্দু ধর্মে সাপকে দেবী মা মনসার বাহন হিসেবে পূজা করা হয়। তাই সোশ্যাল মিডিয়াতেও সাপ সংক্রান্ত বিভিন্ন ভিডিও খুব দ্রুত ভাইরাল হয়ে উঠতে থাকে।

পৃথিবীতে বি-ষ-ধর এবং বি-ষ-হীন এই দুই ধরনের সাপ রয়েছে। তবে অভিজ্ঞতা না থাকলে সাপের প্রজাতি চেনা খুব মুশকিল। তাই সাপ দেখলে অনেকেই আত-ঙ্কি-ত হয়ে তাদেরকে মে-রে ফেলেন। কিন্তু কোনো নিরীহ প্রাণী কে মে-রে ফেলা একেবারেই উচিত নয়।তাই বর্তমানে অনেক রেস্কিউ টিম অর্থাৎ উদ্ধারকারী দল এইসব সরীসৃপ কে উদ্ধার করে যথাস্থানে ছেড়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। সম্প্রতি তাদের তরফ থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে।

মুহূর্তের মধ্যেই অত্যন্ত ভাইরাল এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, কোন একটি বাড়ির রান্না ঘরে সিলিন্ডারের কোনায় একটি কো-ব-রা সাপ ঢুকে গিয়েছে।সাপটিকে ধরা ছিল প্রায় অসম্ভব। কিন্তু উদ্ধারকারী যুবক নিজের প্রাণের তোয়াক্কা না করে সকল কে বাঁচানোর জন্য শেষ পর্যন্ত অনেক কষ্ট করে এই কো-ব-রা টিকে ধরে ফেলেন।প্রসঙ্গত মির্জা মোঃ আরিফ নামে একটি জনপ্রিয় সর্পরক্ষক ইউটিউব চ্যানেলের তরফ থেকে এই ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুতগতিতে শেয়ার হচ্ছে এই ভিডিও। অনেকেই এই ভিডিওটি দেখে নিজের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। রইলো ভিডিও।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button