বিয়ের পিঁড়িতে বসে বিয়ে করতে অস্বীকার যুবতীর, পড়তে চাইলেন না সিঁদুর, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ধরুন আপনাকে কোন কারনেই জোর করে বিয়ে দেয়া হচ্ছে এবং আপনার মনে বসবাস করে কোন অন্য এক মানুষ তাহলে কি আপনার পক্ষে সেই বিয়ে করা সম্ভব হবে ? অবশ্যই হবে না । যদি আপনি সত্যি ভালোবেসে থাকেন তাহলে আপনার ম-নে ক-ষ্ট হবে এবং প্রানপনে চেষ্টা করবেন সেই বিয়েকে আ-টকাবার জন্য । এই ঘটনা যেমন একদিক থেকে সা-মাজিক অ-পরাধ তেমনি অ-ন্যায় ।

সোশ্যাল মিডিয়ার শুধুমাত্র যে সামাজিক এবং রাজনৈতিক ঘটনা তুলে ধরে তেমন কিন্তু নয় । তার পাশাপাশি বিভিন্ন শিক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে সোশ্যাল মিডিয়ার ভূমিকা অনস্বীকার্য । তবে মানুষ যে পরিমাণ অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়ছে সে অবস্থায় দাঁড়িয়ে মানুষকে হাসানোর দায়িত্ব নিয়েছে এই সোশ্যাল মিডিয়া । তাইতো মাঝেমধ্যে আমাদের চোখের সামনে উঠে আসে এমন কিছু ধরনের ভিডিও যা সৃষ্টি করা দমফাটা হাসির পরিবেশ যেমনটা হলো এই দম্পতির ক্ষেত্রে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে একটি বিয়ে বাড়িতে বর এবং কনের মধ্যে ভুল-বোঝাবুঝি দৃশ্য । সেখানে সিঁদুর দানের সময় স্বামী যখন সিঁদুর পরতে যাচ্ছে তখন কোন রকম ভাবে সেটি পড়তে নারাজ পাশে বসে থাকা তার স্ত্রী অর্থাৎ কনে ।কিন্তু কেন? তার কারণ তার মনে আছে অন্য এক ভালোবাসার মানুষ । এবং তাকে খুব সম্ভবত জো-র ক-রে বা-ড়ি থে-কে বি-য়ে দে-ওয়া হ-চ্ছে । তার এই বিয়েতে কোন রকম ইচ্ছে ছিল না । তাই এই ধরনের কর্মকাণ্ড তিনি ঘটিয়েছেন বিয়ের ছাতনা তলায় বসে ।

ভিডিওটি দেখলে আপনি বুঝতে পারবেন যে আশেপাশে থাকা অতিথিরা তা-কে জো-র ক-রে সিঁদুর পরানোর চেষ্টা করা হচ্ছে । কিন্তু সেই যুবতী পড়তে নারাজ এই ভিডিওটি যেমন হাসির পরিবেশ সৃষ্টি করেছে তেমনি সমাজের নি-র্মম সত্যতাকে তুলে ধরেছে । একটা মেয়ে যদি কোনো কারণে অনিচ্ছা প্রকাশ করে থাকে তার বিয়েতে । তাহলে তাকে জো-র ক-রে বি-য়ে দে-ওয়া সা-মাজিক অ-পরাধ এর সমান যা এই সভ্য সমাজের কাছে কাম্য নয় ।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button