দারুন কায়দায় দুর্দান্ত পদ্ধতিতে বাইক বোর্ড বানালেন যুবক, গঙ্গার উপর দিয়ে চলছে দিব্যি, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:বর্তমান সময়ে মানুষ প্রতিটি জিনিসকে নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানোর চেষ্টা করে।ঠিক এমন ভাবেই বহু জিনিস আবিষ্কার করেছে আধুনিক যুগের মানুষ। তাই পরীক্ষা নিরীক্ষার মধ্যে কোনো সীমাবদ্ধতা থাকে না। যুগের পরিবর্তনের সাথে সাথেই সকল মানুষেরাই বিভিন্ন ধরনের কাজে অংশগ্রহণ করছেন। আবার সব জায়গাতে কিন্তু শিক্ষার প্রয়োজন পড়ে না।

আমরা যেমন শিক্ষিত বৈজ্ঞানিকদের দেখেছি, ঠিক তেমনভাবেই এমন অনেক মানুষকে দেখেছি দ্বারা উপযুক্ত প্রশিক্ষণ ছাড়াই এমন অনেক জিনিস তৈরি করেছেন যা দৈনন্দিন জীবনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এমন একটি ভাইরাল ভিডিও সম্পর্কে আলোচনা করব যেখানে অসাধারন কয়েকটি জিনিস আমরা দেখতে পাব।

বর্তমানকালে যেকোনো মানুষের জন্যই সোশ্যাল মিডিয়া একটি উল্লেখযোগ্য প্ল্যাটফর্ম।সারাদিনে কাজের ব্যস্ততার ফাঁকে একবার যেন সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ না রাখলে মানুষের চলেই না।বর্তমানে যে কোন কাজ করার পর তাদের পরিচিতি লাভ করার জন্যেও মানুষ এই সোশ্যাল মিডিয়াকে নিজস্ব হা-তি-য়ার বানিয়ে ফেলেছেন।

করোনা পরিস্থিতিতে আমরা দেখেছি এই সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের প্রাণ বাঁচানোর ক্ষেত্রে অনবদ্য ভূমিকা পালন করেছে।অক্সিজেনের ক্রমাগত চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় আমরা এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অনেক জায়গা থেকে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন এবং স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর খোঁজ পেয়েছি।তাই প্রাচীন সমাজ একথা মানতে বাধ্য যে, সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের জীবনে কিছু কুপ্রভাব সৃষ্টি করলেও অনেক ভালো কাজ করতেও সাহায্য করে।শুধুমাত্র এসব নয় বর্তমানে অনেক মানুষের জীবিকা নির্বাহের জন্যও প্রধান মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটগুলি।

সম্প্রতি সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল একটি ভিডিওতে আমরা দেখতে পাচ্ছি, গঙ্গাবক্ষে হঠাৎ করেই একটি মোটর বাইক চালিত বোর্ড চলাচল করছে। সাধারণ লঞ্চ-ফেরি আমরা সকলেই কমবেশি দেখেছি। কিন্তু এই ফেরিটি একেবারেই অন্যরকম। দেখা যাচ্ছে ফেরিটি তৈরি করার জন্য অপ্রয়োজনীয়’ কাঠ,পিচবোর্ড প্রভৃতি ছাড়াও মোটরবাইকের উপরিভাগ এবং মোটর ব্যবহার করা হয়েছে।

অত্যন্ত দুর্দান্ত পদ্ধতিতে অসাধারণ ভাবে এই ফেরিটিকে তৈরি করা হয়েছে।যদিও ভিডিওর প্রথম অংশে এই বোর্ডটি সঠিকভাবে জলের উপর চলতে পারবে কিনা তা নিয়ে অনেকের মনের মধ্যেই সন্দেহ ছিল।কিন্তু কিছু সময় পেরোনোর পর দেখা যায় অনেকটা বাইক চালানোর মতন করেই উপস্থিত দুই যুবক এই বোর্ডটি চালিয়ে জলের মধ্যে নিয়ে যান। এবং বেশ সুন্দর ভাবেই এটি চলতে থাকে কোনো রকম বাধা— বি-প-ত্তি ছাড়াই।

এই ঘটনা দেখার পর রীতিমতো আপ্লুত হয়ে পড়েছেন নেট নাগরিকরা। তার কারণ জলাশয় নিকটবর্তী অঞ্চলগুলিতে যাতায়াতের জন্য আমাদের প্রায়ই নৌকা এবং অন্যান্য মাধ্যম ব্যবহার করতে হয়।কিন্তু সেসব না কিনে যদি আমরা ঠিক এমন ভাবেই সহজ ঘরোয়া পদ্ধতিতে এই বোর্ডটি বানিয়ে নিতে পারি তাহলে দ্রুত যেকোনো জায়গায় যাতায়াত করতে পারব।

সময় বেঁচে যাওয়ার পাশাপাশি মোটর চালিত এই ফেরিটি আমাদের জীবনকে আরও দ্রুততার সাথে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে খুব সহজেই। যদিও ভিডিওটিতে কিভাবে এই মোটর ফেরিটি বানানো হয়েছে তার জন্য কোন বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি। তবে ইন্টারনেটে সার্চ করলে এই ধরনের অনেক ভিডিও আমরা আরো দেখতে পাবো, আশা করা যায়।আমাদের এই প্রতিবেদনটি আপনার কেমন লাগলো তা অবশ্যই একটি ছোট্ট মতামতের মাধ্যমে জানানোর চেষ্টা করবেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button