ধানক্ষেত থেকে দুর্দান্ত কায়দায় প্রচুর মাছ ধরলেন যুবতী! তুমুল ভাইরাল হল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভারতবর্ষের সবথেকে জনপ্রিয় জীবিকা কৃষিকাজ এবং মৎস্য চাষ। গ্রাম এবং শহর মিলিয়ে প্রায় 70 শতাংশ মানুষ এই কাজের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন।গ্রামের ক্ষেত্রে দেখা যায় শুধুমাত্র পুরুষরাই নয় মহিলারাও কৃষিকাজ এবং মৎস্য চাষে অত্যন্ত দক্ষ। ফসল তোলা থেকে শুরু মাছ চাষ সবেতেই মহিলাদের অবাধ গতি।সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা এই চাষবাসের বিভিন্ন ভিডিও দেখতে পেয়েছি।আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনেও আমরা এরকমই একটি ভিডিও সম্পর্কে আলোচনা করব। এই ভাইরাল ভিডিও টিতে একজন গ্রাম্য মহিলার মাছ সংগ্রহ এবং তা রান্নার পদ্ধতি বিস্তারিত বর্ণনা দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত গ্রামাঞ্চলের সাধারণত পুকুর এবং জলাশয় অত্যধিক থাকে। নিয়মিত এইসব জায়গায় মাছ চাষ করে থাকেন বেশিরভাগ মানুষ। ভিডিওর মহিলাও তার ব্যতিক্রম নন। ভিডিওর শুরুর অংশে দেখা যায় বেশ কিছু জটিলতা অতিক্রম করে জলাশয় থেকে চিংড়ি মাছ সংগ্রহ করেন মহিলা।সুদক্ষ হাতের সাহায্যে সেই মাছগুলোকে সংগ্রহ করে রান্না করার জন্য প্রস্তুত হন তিনি।একেবারেই খুব সাধারণভাবে এই ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

ভিডিওতে মাছ সংগ্রহ করার পর সেগুলিকে পরিষ্কার করে ধুয়ে নিতে দেখা যায় মহিলাকে। এরপর শুরু হয় সেগুলি রান্নার প্রক্রিয়া। এর জন্য প্রথমেই একটি মাঝারি সাইজের চালতা নিয়ে তার টুকরো করে কেটে নেন মহিলা। এরপর সেগুলিকে শিলনোড়ার সাহায্যে থেতলে নেওয়া হয়। এরপর একটি বড় থালার মধ্যে লবণ, পাঁচফোড়ন, হলুদ গুঁড়ো, চেরা কাঁচা লঙ্কা নিয়ে নিতে হবে। সঙ্গে নিতে হবে প্রায় দুই কাপ পরিমাণ সরষের তেল।

তেল গরম হয়ে যাওয়ার পরে তাতে ভালো করে চিংড়ি মাছ গুলিকে ভেজে নিতে হবে। মাছ গুলি ভেজে নেওয়ার পর এটিকে আলাদা পাত্রে তুলে রাখতে হবে। এরপর কেটে নেওয়া চালতা গুলিকে ভেজে নিতে হবে। চালতা গুলি ভাজা হয়ে গেলে তাতে পরিমাণমতো মসলা, হলুদ গুঁড়ো, লবণ প্রভৃতি দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করতে হবে।মসলাগুলো কষে নেওয়া হয়ে গেলে এতে পরিমাণমতো জল ঢেলে দিতে হবে।

কিছুক্ষণ সমগ্র রান্নাটি কে ফুটিয়ে নেওয়ার পর তাতে ভাজা চিংড়ি মাছ গুলি কে ঢেলে দিন। আরও মিনিট তিনেক সময় ধরে রান্না টিকে কষিয়ে নেওয়ার পর এতে চেরা কাঁচালঙ্কা দিয়ে দিতে হবে। সম্পূর্ণ গ্রাম্য পদ্ধতিতে তৈরি এই রান্নাটি যেমন সুস্বাদু তেমনই মনমুগ্ধকর। চাইলে আপনারাও এই রেসিপিটি বাড়িতে ট্রাই করতে পারেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button