চেয়ার পেতে পুকুরের ধারে বসেছিলেন যুবক, হটাৎ পিছনে পা দিয়ে যুবককে ধা-ক্কা মা-র’তেই নিজেই প-ড়ে গে-লে’ন যুবতী, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:বর্তমানে নেটদুনিয়ায় হাসির ভিডিও গুলো দ্রুত ভাইরাল হয়ে ওঠে। টিকটক ,ফেসবুক প্রভৃতি অ্যাপ্লিকেশনগুলির সাহায্যে খুব সহজেই বর্তমানে এই সব ভিডিও প্রস্তুত করছেন মানুষ। আলাদাভাবে অনেক অ্যাপ্লিকেশনও বেরিয়েছে এর জন্য। বলতে গেলে সাধারন মানুষ একটি প্লাটফর্ম পেয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার জন্য।সাধারণত অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় অর্থের অভাবে এবং অন্যান্য সমস্যার কারণে মানুষ নিজের প্রতিভা প্রকাশ করতে পারেন না। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়াতে এত ব্যবহারকারীর দৌলতে খুব সহজেই সেইসব প্রতিভা পরিচিতি লাভ করে।

সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ্লিকেশন বলতে সাধারণত আমরা—ফেসবুক, টুইটার, মেসেঞ্জার, ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ প্রভৃতিকে বুঝি। মানুষের মধ্যে এইসব অ্যাপ্লিকেশন বহুল পরিমাণে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। সম্প্রতি ইউটিউবে আমরা কিছু এমন ভিডিও দেখতে পেয়েছি যা বেশ মজাদার। অবসর মুহূর্তে এই ভিডিওগুলি দেখলে আপনাদেরও ভাল লাগবে, তা নিঃসন্দেহে বলা যায়। আপাতত করোনাভাইরাস এর দ্বিতীয় ঢেউ ছড়িয়ে যাওয়ার ফলে সারা দেশজুড়ে আংশিক লকডাউন এর অবস্থা চলছে। বেশ কয়েকটি জায়গাতে সম্পূর্ণরূপেও লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে।এমতাবস্থায় ঘরবন্দি থেকে মানুষের একমাত্র ভরসা এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।

ওই ভাইরাল ইউটিউব ভিডিও গুলিতে দেখা যাচ্ছে কিছু বন্ধু-বান্ধবদের নানান ধরনের খুনসুটি। যেমন ভিডিওর একটি অংশে দেখা যাচ্ছে পুকুরপাড়ে এক যুবক চেয়ার পেতে বসে রয়েছেন। সেখানে আচমকাই তার পেছনদিকে হাজির হন এক যুবতী। এরপর সেই যুবককে পেছন থেকে ধাক্কা দিতে গিয়ে নিজেই হঠাৎ করে জলে পড়ে যান।ভিডিওটি যে মজার উদ্দেশ্যেই বানানো হয়েছে তা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। অনেকেই ভিডিওটির কমেন্ট বক্সে ওই যুবক— যুবতীর অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন।

মাত্র কিছু সময় আগে শেয়ার করলেও এখনো পর্যন্ত অনেকটাই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ওই ভিডিওটি। যে কারণে মানুষের মধ্যে এরকম ধরনের আরো ভিডিও বানানোর ইচ্ছা জাগ্রত হয়েছে।চাইলে আপনিও এই ভিডিওটি দেখে বন্ধু-বান্ধবদের সাথে শেয়ার করতে পারেন। তবে অবশ্যই আমাদের এই প্রতিবেদনটি আপনার কেমন লাগলো তা একটি ছোট মন্তব্যের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না। কারণ আপনার প্রতিটি বক্তব্য আমাদের কাছে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

https://youtu.be/_KXxRfF24GM

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button