শৌ-চকর্ম করছিলেন যুবক হঠাৎ নিচ থেকে উঠে আসলো বড় কোবরা সাপ,ধরতে গিয়েই বড় বি-পত্তি,ব্যাপক ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন: আধুনিক যুগের একটি অত্যন্ত বড় এবং বিশ্বস্ত প্লাটফর্ম সোশ্যাল মিডিয়া। তবে হঠাৎ করে এখানে কাউকে বিশ্বাস করা উচিত নয়। নির্দিষ্টভাবে যাচাই করে নেওয়ার পরেই কোন কাজে এগোনো উচিত।সোশ্যাল মিডিয়ার দরুন আমরা বর্তমান যুগে এমন বেশকিছু ধরনের ঘটনা দেখে থাকি যা হয়তো এর আগে আমরা কোনোদিন দেখিনি । সেই সমস্ত ঘটনাবলি আমাদেরকে অবাক করে তোলার পাশাপাশি করে তোলে হত-ভম্ভো এবং কৌতুহলী ।ব্যবহারকারীর সংখ্যা বহু হওয়ার কারণে মুহূর্তের মধ্যেই এই সব ভিডিও আমাদের চোখের সামনে ভাইরাল হয়ে ওঠে।

সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে জনপ্রিয় হতে চাই এই প্রজন্মের প্রতিটি ছেলে এবং মেয়ে । সেই তালিকা থেকে বাদ যায়নি অভিনেতা এবং অভিনেত্রী। মানুষ ছাড়াও বিভিন্ন পশু পাখি এবং জীবজন্তুর ভিডিও অত্যন্ত ভাইরাল হয়ে ওঠে। সাধারণত খালি চোখে এসব ভিডিও দেখতে পাওয়া যায়না। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আলোচনা করব সাপের একটি নতুন প্রজাতির ভিডিওর কথা, যাক দিন দুয়েক ধরে নেট দুনিয়ায় শোরগোল ফেলে রেখে দিয়েছে। ভাইরাল ওই ভিডিওতে আমরা দেখতে পাচ্ছি, একটি গ্রাম্য অঞ্চলের শৌচালয়ের মধ্যে কোন ভাবে একটি চন্দ্রনাগ সাপ ঢুকে গিয়েছে।

প্রথমে সাপটিকে বের করে আনার জন্য উদ্ধারকারীদের খবর দেওয়া হয়। সেই যুবকেরা আসার পর থেকে উদ্ধার করার প্রক্রিয়া শুরু হলে দেখা যায় বেশ বেগ পেতে হয় তাদের।কিছুক্ষন এভাবে চলার পর শেষ পর্যন্ত স্টিলের লাঠি দিয়ে ওই প্ৰশিক্ষিত যুবকরা সাপটিকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন। জানা যায় ভিডিওটি ওড়িশা রাজ্যের ভদ্রক জেলার নদীগাও এলাকার। ভিডিওটি ওই উদ্ধা-রকারী যুবকদের মধ্যে থাকা মির্জা মহাম্মদ আরিফ নামে এক ব্যক্তি নিজের ইউটিউব চ্যানেল থেকে শেয়ার করেছেন। সেখানে তিনি সাপটি সম্বন্ধে নানান বিস্তারিত তথ্যও জানিয়েছেন।

জানা গিয়েছে চন্দ্রনাগ হলো ভয়-ঙ্কর কোবরা সাপের একটি প্রজাতি। কিন্তু সাধারণ কোবরার থেকেও এই সাপটি অত্যন্ত সহজে রে-গে যায়। সাপের এই প্রজাতিটি ভিজে মাটিতে বসবাস করতে অত্যন্ত ভালোবাসে। কিন্তু কোবরার মত এই সাপের বি-ষও মূলত নিউরোটক্সিক;অর্থাৎ কোন প্রাণীকে এই সাপ কাম-ড়ালে সেই মানুষের স্নায়ু-তন্ত্র চরম-ভাবে আ-ক্রান্ত হয়। অন্যান্য সাপেদের তুলনায় এই সাপের ডিম বিশাল আকৃতির হয়। দক্ষিণ এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াতে চন্দ্র-নাগ বেশি দেখতে পাওয়া যায়।

চীন, ভারত, ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়া, মালয়েশিয়া, বাংলাদেশ, ভুটান, মায়ানমার প্রভৃতি অঞ্চল এই সাপের বসবাসস্থল।যাইহোক ভিডিওটি শেয়ার করে ওই সাপের সম্বন্ধে মানুষকে জানার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য যুবকদের ধন্যবাদ জানানো হয়েছে। পাশাপাশি এত সুন্দর পদ্ধতিতে সাপটিকে উ-দ্ধার করে জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়ার জন্যও মির্জা মোঃ আরিফ এর প্রশংসা করেছেন অনেকে।কারণ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এসব বি-ষধর সাপকে মে-রে ফেলেন মানুষ, যা একেবারেই উচিত নয়।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button