দারুণ কায়দায় একদম মানুষের মতো ভঙ্গিমায় একে অপরের সাথে কথা বলতে বলতে খাবার খাচ্ছে দুই শালিক, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- পাখি কার ভালো লাগে না । আমাদের পরিবেশের সৌন্দর্য তা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে পাখি । বিভিন্ন ধরনের পাখি
আছে আমাদের এই দেশে । বিভিন্ন প্রজাতির পাখি পাওয়া গেল বিশেষ করে চড়ুই পাখি শালিক পাখি এবং টিয়া পাখি বেশ জনপ্রিয় । অনেকে আবার এগু-লিকে বাড়িতে পু-ষে রাখে যদিও এমনটা এই সভ্য সমাজে কাছ থেকে কাম্য নয় । কারণ পাখি মানে খোলা মেলা আকাশে নিজের ডানা ঝাপটে উড়ে বেড়াবে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য বাড়াবে । কখনোই তাঁকে খাঁচার মধ্যে বন্দী করে রাখা উচিত নয়।

কিন্তু আমাদের আশেপাশে এমন অনেক মানুষ রয়েছে যারা বাড়িতে পাখি পুষে ঠিক কথাই কিন্তু তাদেরকে কখনো এ খাঁ-চা ব-ন্দি করে না । ছোটবেলা থেকে পোষ মানায় নিজেদের বাড়িতে । তারপর খোলামেলা জায়গাতে ছেড়ে রাখে তাদেরকে । আশ্চর্যের বিষয় হলো পাখিগুলো কিন্তু তাদেরকে ছেড়ে কোথাও অন্যত্র উড়ে চলে যায় না । কোথাও একটা বিশ্বাস ভরসা কাজ করে দুজনের মধ্যে।

পাখির নানান ধরনের ভিডিও আমরা দেখতে পেয়েছি এর আগের সোশ্যাল মাধ্যমে । যেমন ধরুন টিয়াপাখি গিটারের সুরে সুরে গান গাইছে বা বাড়ির লোকেদের সাথে এক থালায় বসে খাবার খাচ্ছে । আবার কখনো ধরুন জানলার কাছে ধা-ক্কা দিয়ে বাড়ির লোককে ডাকছে । এ সমস্ত কিছু ঘটনা আমরা সোশ্যাল মাধ্যমে দেখে থাকি ও মাঝেমধ্যে আ-প্লুত হয় সে সমস্ত ঘটনাবলি দেখে । তবে সম্প্রতি একটি পাখির ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে ইউটিউবে যা অন্যান্য পাখির ভিডিও থেকে কিছুটা হলেও আলাদা । কারণ এখানে একটি নয় দুটি পাখি রয়েছে এবং বাকি দুটি শালিক পাখি।

শালিক পাখির জনপ্রিয়তা ভারতে প্রচুর পরিমাণে। শুধুমাত্র ভারত-বাংলাদেশ রয়েছে জনপ্রিয়তা । অনেকে এগু-লির পুষে রাখে । শালিক পাখি ও টিয়া পাখি কথা বলতে পারে যদি প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়ে থাকে। সম্প্রতি যে ভিডিওটি প্রকাশিত হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে এক যুবক হাতের মধ্যে কিছু চাল নিয়ে আছে এবং দুটি ভিন্ন প্রজাতির শালিক পাখি তার হাত থেকে তাদের ঠোঁটের মাধ্যমে সে চাল গু-লি খাচ্ছে ।অবাক করা কা-ন্ড টি নেট মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া মাত্রই ভাইরাল হয়েছে । তার পাশাপাশি যেহেতু এটি একটি মনোরম দৃশ্য তাই অনেকের শেয়ার করে রেখেছে নিজেদের টাইমলাইনে ।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button