এই রাজ্যে পরপর ২ দিন টানা লকডাউন ঘোষণা করল সুপ্রিম কোর্ট! জেনে নিন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- একথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই যত আমার সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি ততই কিন্তু আমরা নিজেদের বি-পদ নিজেই ডেকে নিয়ে আসছি ।আধুনিক জিনিসপত্র ব্যবহার করার চক্করে একাধিক ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে পরিবেশ এর। তার পাশাপাশি প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে ক্ষ-তিগ্রস্থ হচ্ছি আমরা। বিগত কয়েকদিন ধরে যে পরিমাণে দূষণের মাত্রা বেড়েই চলেছে তাতে একাধিক সমস্যা দেখা যাচ্ছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।

কখনও ফুসফুসের সমস্যা কখনও আবার হৃদরোগের সমস্যা প্রকট হয়ে উঠছে এই সমস্ত কারণে। গোটা দেশজুড়ে যখন লকডাউন জারি করা হয়েছিল তখন কিন্তু বাতাস অনেকটাই পরিষ্কার হয়ে গেছিল। মানুষ প্রাণভরে শুদ্ধ বাতাস গ্রহণ করতে পারছিল। কিন্তু পরিস্থিতি আবার স্বাভাবিক হওয়ার সাথে সাথেই গাড়ি-ঘোড়া যানবাহন এবং কলকারখানা পুনরায় চালু হয়েছে। যার ফলে আকাশ ঢেকেছে আবার বি-ষাক্ত গ্যাসে।

কলকারখানা গাড়ি থেকে নির্গত কার্বন ডাই অক্সাইড কার্বন মনোক্সাইড নাইট্রাস অক্সাইড প্রতিনিয়ত একাধিক সমস্যা সৃষ্টি করেছে। এবং এই সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে দিল্লি। তাই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য প্রশাসনের তরফ থেকে একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। দিল্লিতে ক্রমাগত বাড়ছে দূষণের পরিমাণ। তাই এই লাগামছাড়া দূষণের হাত থেকে ক্ষনিকের নিষ্কৃতি পাওয়ার জন্য দুদিন লকডাউন এর কথা ঘোষণা করতে পারে দিল্লি সরকার।

আজ শনিবার এই সংক্রান্ত একটি মামলায় কেন্দ্রীয় সরকার এবং দিল্লি রাজ্য সরকারকে এই পরামর্শ প্রদান করেছে সুপ্রিম কোর্ট। সেই সাথে সব পক্ষকে নিয়ে কেন্দ্রকে একটি জরুরি বৈঠক আহ্বান করার নির্দেশ প্রদান করেছে সুপ্রিম কোর্ট।যদি সপ্তাহে দুদিন করে লকডাউন রাখা যায় তাহলে কিন্তু এই দূষণের মাত্রা অনেকটা কমিয়ে আনা সম্ভব হবে তার পাশাপাশি দিল্লিবাসীর পক্ষে এটা অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপায় হবে বলে মনে করছে দিল্লির প্রশাসন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button