একদম মানুষের মতো দারুণ কায়দায় বাচ্চা মেয়েকে খেলনা গাড়িতে নিয়ে সারা রাস্তা ঘোরাচ্ছে বাঁদর, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:ইন্টারনেট জগত মানুষকে অনেক জিনিস সম্বন্ধে জানতে সাহায্য করে। খুব সহজেই আমরা সামান্য কিছু টাকা খরচ করে এমবি কেনার পর নেট মাধ্যম ব্যবহার করতে পারি। বর্তমানে নেটদুনিয়া বলতে আমরা সাধারণত সোশ্যাল মিডিয়াকে বুঝে থাকি। সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্লাটফর্ম গুলিতে আমরা খুব সহজেই যেকোন বিষয় নিয়ে পরিচিতি লাভ করতে পারি।

ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার, হোয়াটসঅ্যাপ প্রভৃতি জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম হিসেবে পরিচিত। এখানে প্রতিনিয়ত নানান ধরনের ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়। এর মধ্যে কিছু ভিডিও রয়েছে যা আমাদের মনে অত্যন্ত আনন্দ দান করে।এমনকি কোন কারণে মন ভারাক্রান্ত থাকলেও এই ভিডিওগুলি আমাদেরকে হাসতে বাধ্য করে দেয়।

বর্তমানের সকল বয়সের মানুষেরাই সোশ্যাল মিডিয়ার সাথে যুক্ত হয়ে পড়েছেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা একটি অবাক করা ভাইরাল ভিডিও নিয়ে আলোচনা করবো। এই ভাইরাল ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, একটি বাঁদর অসাধারণ কায়দায় এক শিশুকে নিয়ে খেলনা গাড়িতে মানুষের মতো ঘুরে বেড়াচ্ছে।এক মুহূর্তের জন্যেও বোঝা সম্ভব নয় যে সে একজন মানুষ নয়। বাঁদরটির মালিক তাকে একটি মেয়ের জামা পর্যন্ত পরিয়ে দিয়েছে।

এক কথায় এই ঘটনাটি দেখে অভিভূত হয়ে পড়েছেন নেট নাগরিকরা।ভিডিওতে আরও দেখা যায় যে এক যুবতী ওই বাঁদর সহ একটি কুকুর এবং দুই শিশুকে চাউমিন বানিয়ে খাওয়াতে থাকেন।দুই মানব শিশুর মত কুকুর এবং বাদরটিও সমানতালে মায়ের আদর উপভোগ করতে থাকে। মায়ের ভালোবাসা পাওয়া সবার ভাগ্যে সমানভাবে থাকে না। এই বন্য পশুগুলি সেই জায়গায় অনেকটাই ভাগ্যবান। চাইলে এই অসাধারণ ভাইরাল ভিডিওটি আপনারাও দেখে আসতে পারেন।

সম্প্রতি আমরা এই ধরনের আরেকটি ভিডিও ভাইরাল হতে দেখেছিলাম যেখানে একেবারে অসাধারণ কায়দায় মানুষের মত হুবহু কথা বলছিল দুই টিয়াপাখি। রীতিমতো মালিকের ডাকে “মাম্মা মাম্মা” বলে ডাকছিল তারা।সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক পরিমাণে ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল এই টিয়া পাখি দুটির ভিডিও।অনেকেই তাদেরকে এত সুন্দর কথা বলানো শেখানোর জন্য তাদের মালিকেরও প্রশংসা করেছিলেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button