হুবহু মানুষের মত কথা বলে তাক লাগাল ছোট্ট শালিক পাখি, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

টিয়া পাখি যে কথা বলতে পারে এতো অনেক জায়গা তেই শোনা যায়। কিন্তু শালিক পাখি? সেও কি পারে কথা বলতে! “জোড়া শালিক দেখা ভালো সকালে বিকালে” এই প্রবাদ গ্রামাঞ্চলে বেশ প্রচলিত প্রবাদ। এক শালিক দেখলে নাকি দিন খারাপ যায়। আসলে এগুলো সবই কথার কথা। বাস্তবে কিন্তু সেরকমটাই মোটেই ঘটে না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শুধুই যে মানুষের প্রতিভা ভাইরাল হচ্ছে। এমনটা একদমই নয়। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে ভাইরাল হওয়ার দিক থেকে বাদ যাচ্ছেনা পশুপাখিরাও। তারাও নানান অদ্ভুত ক্রিয়াকলাপ দেখায়, যা সত্যি বিচিত্র ধরনের। আসলে মানুষের মতো তাদেরও ভাইরাল হওয়ার ইচ্ছে জাগে বৈকি।

তারাও এমন কিছু মজার আচরণ করে তা সত্যি হাসিয়ে দেয়। আবার কখনো কখনো তারা এমন কাণ্ড করে যা তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো। টিয়া কাকাতুয়া তারা মানুষের স্বর নকল করতে পারে। কিন্তু বাকি পাখিদের নিজস্ব ডাক আছ। তার এই ভাষা হয়তো আমরা বুঝতে পারিনা কিন্তু তাদের মধ্যেও ভালোবাসা, রাগ, অভিমানের অনুভূতি সমান ভাবেই কাজ করে।

তার একটি নিদর্শন মিলল এবার। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে এখন আর কোন কিছুই অজানা থাকেনা আমাদের কাছে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যা দেখে রীতিমতো অবাক হয়েছে নেটবাসী।সাম্প্রতিক সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে যে, একটি শালিক পাখি কথা বলছে। তাও আবার মানুষের ভাষায়

কিন্তু সাধারণত সকলেই জানি যে শালিক পাখি কথা বলেনা। কিন্তু এখানে শালিক পাখিটিকে যা প্রশ্ন করা হচ্ছে সে সেই মতোই উত্তর দিচ্ছে। এমনকি এক ব্যক্তি পাশ থেকে যেমন কথা বলছে বা মুখে যেমন আওয়াজ করছে সবটাই নকল করে নিয়েছে এই ট্যালেন্টেড শালিক পাখি। পৃথিবীতে এমন অনেক অবিশ্বাস্য ঘটনা ঘটে থাকে যা দেখে আমরা হতভম্ব হয়ে যাই।

কিন্তু এই বিশ্ব প্রকৃতিতে যে কোনো কিছুই অসম্ভব নয় তার প্রমাণ মেলে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। প্রতিদিন প্রতিনিয়ত কত কিছুই না ঘটে চলেছে এই দুনিয়া জুড়ে। তার সবটাই আমরা দেখতে পাই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। অনেক সময় অনেকেই সবকিছু ক্যামেরা বন্দী করে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমাদের কাছে পৌঁছে দেন। ঠিক যেমন এই শারিফ পাখির কথা বলার ভিডিওটি।

অলক কয়াল নামক জনৈক ব্যক্তি নিজের ইউটিউব চ্যানেল থেকে সাম্প্রতিক এই শালিক পাখির কথা বলার ভিডিওটি পোস্ট করেছেন। ৬৪ হাজার দর্শক ইতিমধ্যেই ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন। ২০ হাজার লাইক পড়েছে ভিডিওটিতে। কমেন্ট সেকশনে সকলেই এই শালিক পাখির কথা বলার ভিডিও নিয়ে নানান মন্তব্য করেছেন। অনেকেই বন্ধু বান্ধবীদের সঙ্গে শালিক পাখির কথা বলার সুন্দর ভিডিওটি শেয়ার করে নিয়েছেন।

বাড়িতে থাকতে থাকতেই এক সময় পশুপাখিরাও বাড়ির সদস্য হয়ে যায়। পশু পাখিদের আদর-যত্নে বড় করে তুলি আমরা। মানুষের সঙ্গে হৃদ্যতার সম্পর্ক তৈরি হয় পশুপাখিদের। আমার বাড়িতে অনেকেই শালিক পাখি পুষে রাখি। হ্যাঁ এখন অনেকেই বাড়িতে শালিক পাখি পুষে রাখেন। এরা খুব সহজেই মানুষের পোষ মেনে নেয়। পোষ মেনে যাওয়ার পর খাঁচা বন্দি করে রাখার প্রয়োজন হয় না এদের।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button