সমুদ্রের গর্ভে তলিয়ে যাবে এই দেশ সবার আগে, স্পষ্ট প্রমান দিয়ে জানিয়ে দিলেন বিজ্ঞানীরা

নিজস্ব প্রতিবেদন :-প্রতিনিয়ত গ্রিনহাউস গ্যাসের বৃদ্ধি ঘটায় জন্য একাধিক জায়গাতে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে ।তবে সমীক্ষা জানাচ্ছে যে প্রশান্ত মহাসাগর এবং ভারত মহাসাগরে তাপমাত্রা অন্যান্য মহাসাগরে তুলনায় তিনগুণ হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে ।এর পাশাপাশি আরও একাধিক তথ্য উঠে এসেছে সংস্থা সমীক্ষা থেকে যেগুলি উদ্বেগের অন্যতম কারণ হিসেবে ধরা হচ্ছে ।

লাল সর্তকতা জারি করা হচ্ছে ভারতবর্ষের জন্য এবং আগামী কয়েক বছরে যদি এরকম পরিস্থিতি অব্যাহত থাকে তাহলে ভারতবর্ষসহ এশিয়া মহাদেশের আরো অনেক জায়গা।তবে বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন যে পৃথিবীর মধ্যে এমন একটি দেশ রয়েছে যেটি আজ না হোক কাল সমুদ্র গর্ভে তলিয়ে যাবে কোন রকম ভাবেই এই দেশকে বাঁচানোর সম্ভব নয় কারণ এই দেশের তাপমাত্রা এবং জলস্তর বাড়তে শুরু করেছে ।

বিজ্ঞানীদের পর্যালোচনা অনুযায়ী সর্বপ্রথম জলের তলায় মিলিয়ে যেতে পারে প্রবাল দ্বীপ কিরিবাতি। ভু বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন ইতিমধ্যেই এই দ্বীপের বরফ গলতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যেই এই দেশ তাদের ভবিষ্যতের কথা আগাম ধরে নিয়েই যুদ্ধ জারি রেখেছে। ফিজিতে জমি কিনতেও শুরু করেছে এই দেশ।কিরিবাস দেশটি অবস্থিত প্রশান্ত মহাসাগরে। মূলত ৩৩ টি প্রবাল দ্বীপ নিয়ে অবস্থিত এই দেশ।

এর মধ্যে মানুষ বসবাস করে কেবল মাত্র ২১ টি দ্বীপেই।এই দেশটির সংস্কৃতি পৃথিবীর অন্য দেশের সংস্কৃতি থেকে যথেষ্ট পরিমাণে আলাদা যেহেতু প্রায় প্রতিটি গোলার্ধের মধ্যবর্তী জায়গাতেই দ্বীপ অবস্থিত বিভিন্ন জায়গাতে বিভিন্ন সময়ের তারতম্য দেখা যায় এখানে অস্ট্রেলিয়ান ডলার ব্যবহৃত হয়।

কুমারিত্বকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া এই দেশে শারীরিক সম্পর্ক করিয়ে কুমারী যাচাই করার রীতিও রয়েছে। তবে প্রবালদ্বীপের শুধুমাত্র যে হিমবাহ গলনের ফলে এই ধরনের সমস্যা দেখা দিয়েছে তেমন কিন্তু নয় ।একসময় প্রচুর মানুষ এখানে আসতো পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য সেখান থেকে প্রতিনিয়ত ছড়িয়েছে দূষণের মাত্রা ।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button