স্মার্টফোন চার্জে দেওয়ার সঠিক নিয়ম, এভাবে স্মার্টফোন চার্জ দিলে ফোন যাবে কম করে ১০-১২ বছর, রইলো ভিডিও সহ!

নিজস্ব প্রতিবেদন:স্মার্টফোন আজ দরিদ্র থেকে ধনী সবার হাতের পুতুল।কিন্তু এই মোবাইলের এর সঙ্গে জড়িয়ে থাকা কিছু সঠিক নিয়ম অনেকেই জানেন না।সঠিকভাবে ফোন চার্জ না দিলে দ্রুত ফোনের ব্যাটারি খারাপ হয়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়।আমরা সবাই প্রায় এখন জড়িয়ে থাকি সারাদিন সোশ্যাল সাইট গুলোতে আর রাতে আমাদের চোখে ঘুম আসার সাথে সাথেই ফোন ও যায় চার্জে।এই চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম গুলো জেনে নিন।

১. মোবাইল চার্জ দেওয়ার সময়:মোবাইল তখনই চার্জ দেবেন যখন এতে ৫০% এর কম চার্জ থাকবে।৫০-৯০% চার্জ বজায় রাখা সবসময়ই উচিত।এই ৫০% এর কম চার্জ হলেই সঠিক সময় ফোন চার্জে বসানোর।

২. চার্জের পরিমাণ ২০% থেকে না কমানোর চেষ্টা:যখন মোবাইলের ব্যাটারির চার্জ ২০% থেকেও কম, তখন মোবাইল দুর্বল থাকে। দিনের পর দিন ২০% থেকেও কম চার্জ থাকা অবস্থায়, ভারী ভারী অ্যাপস মোবাইলে ব্যবহার করলে ব্যাটারি খারাপ হয়ে যায়।

৩.১০০% চার্জ দেওয়া ?স্মার্টফোনে সম্পূর্ণ ১০০% চার্জ না দিয়ে, ৯০% থেকে ৯৫% অব্দি চার্জ হলে মোবাইল ব্যাটারির পক্ষে ভালো। তবে, মাসে একবার সম্পূর্ণ ১০০% ফুল চার্জ দিতে হবে।

৪. মোবাইল চার্জে দিয়ে ব্যবহার করবেন?হ্যা কি না?-একদমই না মোবাইল চার্জে বসিয়ে কখনোই ব্যবহার করবেন না।এতে মোবাইলের ব্যাটারি সাংঘাতিক বেশি পরিমানে গরম হয়ে যায় এবং ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

৫.অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ সরিয়ে রাখা এবং Battery optimization app এর ব্যবহার: আমাদের মোবাইল ফোনে প্রায় প্রত্যেক সময়, কিছু না কিছু apps কাজ করতেই থাকে এর মধ্যে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস গুলোকে না রাখাই ভালো।এছাড়াও অনেক ভালো mobile battery optimization apps রয়েছে, যেগুলি ব্যবহার করে আপনি background এ ব্যবহৃত চার্জের পরিমান কমিয়ে দিতে পারবেন। উপরের এই নিয়ম গুলি সঠিক ভাবে পালন করলে ফোন সংক্রান্ত সমস্যা থেকে অনেকাংশেই মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Check Also
Close
Back to top button