বাড়ির দেওয়ালে নোনা ধরার সমস্যায় ভুগছেন? জানুন নোনা ধরার আসল কারণ ও তার প্রতিকার!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-শুধুমাত্র একটা সুন্দর বাড়ি তৈরী করে নিলাম তাহলে কিন্তু মুক্তি পাওয়া গেলো তেমন কিন্তু নয়। সেই বাড়ি ঘিরে একাধিক সমস্যা দেখা যেতে পারে ।তবে বর্তমানে প্রায় প্রতিটি বাড়িতে যে ধরনের সমস্যা পরিলক্ষিত হচ্ছে সেটা অত্যন্ত ভয়ঙ্কর হতে পারে কয়েক বছর পর ।এই সমস্যাকে আমরা নোনা ধরা বা ড্যাম্প বলে থাকি এবার আপনাকে জানতে হবে কেন দেওয়ালে নোনা ধরে।

আপনি যখন বাড়ি তৈরি করছেন বাড়ি তৈরি করার জন্য যে ব্যবহার করছেন সেই ইট এ যদি কোন কারণে লবণ পটাশিয়াম ম্যাগনেশিয়াম ইত্যাদির পরিমাণ বেশি থেকে থাকে তাহলে কিন্তু সেটি নোনা সৃষ্টি করতে পারে। এবার হয়তো আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে যে শুধুমাত্র ইট কিভাবে এই সমস্যা সৃষ্টি করে। তবে তার উত্তর আপনাদেরকে জানিয়ে রাখি শুধুমাত্র ইট এই সমস্যার কখনোই তৈরি করে না ।

তার সাথে অতি অবশ্যই জলের সংস্পর্শে প্রয়োজন পড়ে ।তিন রকম ভাবে আপনার দেওয়ালকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে এবং নোনা এর সৃষ্টি করতে পারে। প্রথমত মাটির নিচে থেকে জল উঠে আসতে পারে এবং ক্যাপিলারি সিস্টেমের মাধ্যমে একটি ইট থেকে পরবর্তী ইট এ দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে দ্বিতীয়তঃ অনবরত বৃষ্টির জল দেয়ালের গায়ে লাগলে সেটি ইটের সংস্পর্শে এসে নোনা সৃষ্টি করতে পারে। তৃতীয়তঃ কোন কারণে যদি দেয়ালের ভিতর পাইপ ফেটে যায় তাহলে সেখান থেকে নোনা সৃষ্টি হতে পারে।

প্রতিরোধের উপায় , যখন আপনি বাড়ি তৈরি করছেন তখন অতি অবশ্যই যে ইট ব্যবহার করছেন সেই ইটের কোয়ালিটি চেক করুন ।পাশাপাশি যে বালি ব্যবহার করছেন সেই বালি যেন সামুদ্রিক বালি না হয় সে ব্যাপারে নজর রাখুন। এবং ফ্লোর তৈরি করার আগে যেন একটা কংক্রিটের লেয়ার দেওয়া থাকে সে ব্যাপারে নিশ্চিন্ত থাকুন। যদি কোন কারণে আপনার বাড়িতে ইতিমধ্যে নোনা ধরে থেকে থাকে তাহলে সেখান থেকে মুক্তি পাবেন কিভাবে?

প্রথমত যতটা অংশজুড়ে নোনা লেগেছে তার থেকে একটু বেশি অংশের প্লাস্টার আপনাকে ছাড়িয়ে ফেলতে হবে। তারপর উক্ত জায়গাতে তেঁতুল জল স্প্রে করতে হবে। প্রায় দুই থেকে তিনবার দিনে তেঁতুল জল স্প্রে করতে হবে এবং প্রতিবারের মধ্যে অন্তত দুই থেকে তিন ঘন্টা পার্থক্য থাকতে হবে ।এরপর বিভিন্ন ওয়াটারপ্রুফ এডমিক্সার দিয়ে সেই জায়গাটিকে পুনরায় প্লাস্টার করে দিতে হবে। তাহলে প্রায়ই অনেক বছর আপনি এই নোনার হাত থেকে মুক্তি পাবেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button