প্লাটফর্মে হঠাৎ বড় কো-ব’রা, নিচে রেললাইনে যেতেই হ’ঠাৎ চলে এলো ট্রে’ন, ঘ-টলো বি-প’ত্তি, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা প্রতিনিয়ত নানান ধরনের ভিডিওর সন্ধান পাই।এই ভিডিওগুলি আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অবসর সময় কাটাতে খুব ভালোভাবেই সাহায্য করে। তবে সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার বেড়ে যাওয়া নিয়ে চিন্তা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।কারণ অতিরিক্ত সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করার ফলে মানুষের দৈনন্দিন জীবনে নানান ধরনের প্রভাব পড়ছে।

অনেক মানুষ মানসিক অ-ব-সা-দে ভোগেন এবং অনেকেই আবার নিজের পারিবারিক জীবন থেকে বি-চ্ছি-ন্ন হয়ে গিয়েছেন।সারাটা দিন সোশ্যাল মিডিয়ায় সময় কাটানোর ফলে পরিবারকে সময় দেওয়া একেবারেই সম্ভব হচ্ছে না মানুষের পক্ষে।

তাই বর্তমানে নিজেদেরকে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে যতটা সম্ভব দূরে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।কিন্তু মানবজগৎ নেট মাধ্যমের সাথে এতটাই অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িয়ে গিয়েছে যে হয়ত তা এই মুহূর্তে আর সম্ভব নয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় সাপ সংক্রান্ত যেকোন ভিডিও খুব দ্রুত ভাইরাল হয়ে ওঠে।যেমন কিছুদিন আগেই আমরা মির্জা মহাম্মদ আরিফ নামে একটি জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রকাশিত সাপের ভিডিও দেখতে পেয়েছিলাম।

এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছিল ভ-য়ং-কর কয়েকটি কোবরা সাপ একটি মুরগিকে আ-ক্র-ম-ণ করেছে। প্রধানত মুরগির বাচ্চা গুলিকে খাওয়ার জন্য এই সাপটি এসেছে তা বোঝা যাচ্ছে। কিন্তু মা মুরগির দক্ষতা এবং সাহসিকতার জন্য সেই সাপটি মুরগির বাচ্চা দের আ-ক্র-ম-ণ করতে সক্ষম হয়নি। যতক্ষণ পর্যন্ত না সাপটি সেখান থেকে চলে গিয়েছে মা মুরগিটি ঠোকর দিয়ে গিয়েছে তাকে। এই ভিডিওটি দর্শকমহলে অত্যন্ত ভালোবাসা পেয়েছিল। সকলেই মা মুরগিটির অত্যন্ত প্রশংসা করেছিলেন।

সম্প্রতি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি রেলওয়ে স্টেশনের মধ্যে হঠাৎ করেই একটি কোবরা সাপের আগমন ঘটে গিয়েছে। সাপটি রেললাইনের ওপার থেকে এপার চলাচল করছে।বেশ কিছুক্ষন এভাবে চলার পর হঠাৎ করেই রেললাইন এর অপর দিক থেকে আসা একটি ট্রেনের নিচে চলে যায় কোবরা টি।

তারপর ঠিক কি হলো যদিও ভিডিওতে বোঝা যায়নি।তবে ভিডিওটি দেখে অনেকেই আ-ত-ঙ্ক প্রকাশ করেছেন যে তবে কি শেষ পর্যন্ত নিরীহ প্রাণীটি ট্রেনের তলায় চলে গেল! যাইহোক চাইলে আপনারাও এই ভাইরাল ভিডিওটি দেখে আসতে পারেন।আমাদের এই প্রতিবেদনটি আপনার কেমন লাগলো তা জানাতে অবশ্যই ভুলবেন না।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button