প্রেমিক সিদ্ধার্থের সঙ্গে কাটানো শেষ স্মৃতি টুকু আঁকড়ে ধরেই বেঁচে রয়েছেন শেহনাজ! ভাইরাল হলেও তাদের শেষ ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-জীবন এবং মৃ-ত্যু শব্দ দুটি পরিপূরক এবং একে অপরের সাথে গভীরভাবে জড়িত জীবন থাকলে মৃ-ত্যু হবে এবং সেই কঠিন সত্য কেউ নেই আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে তবুও এমন কিছু ঘটনা থাকে যা মেনে নিতে অনেক সময় লেগে যায় ঠিক যেমন একটি ঘটনা হচ্ছে সিদ্ধার্থ শুক্লা মৃ-ত্যু । এখন শুধুমাত্র তার কাটানো মুহূর্তগুলি জড়িয়ে আঁকড়ে বাচ্চা ছাড়া আর কোন উপায় নেই তার পরিবারের মানুষজনের এবং তার প্রেমিকার।

প্রতিনিয়ত সোশ্যাল মিডিয়ার পর্যায়ে ভেসে আসছে তাদের কাটানো মুহূর্তগুলি । আরো গভীরভাবে আবেগপ্রবণ করে তুলছে তার অনুরাগীদের । বয়স মাত্র ৪০ বছর কিন্তু হঠাৎ করেই থেমে গেল তার জীবন যাত্রা । অভিনয় জগতে একজন জনপ্রিয় অভিনেতা হয়ে উঠেছিলেন তিনি। খুব অল্প সময়ের ব্যবধানে ।কিন্তু তার হয়তো এতটা পর্যন্ত ছিল সবাইকে ছেড়ে চলে যেতে হল পরলোকে।

বলিউড ইন্ডাস্ট্রি একজন জনপ্রিয় অভিনেতা হলেন সিদ্ধার্থ শুক্লা । ছোটপর্দার ধারাবাহিক গুলি থেকে শুরু করে বিভিন্ন মিউজিক ভিডিওতে ব্যাপক পরিমাণে জনপ্রিয়তা লাভ করতে শুরু করেন । তার পাশাপাশি তিনি বিগ বস ১৩ মঞ্চে বিজয়ী হয়েছিল । সেখানেই পরিচয় হয়েছিল শাহনাজের সাথে ।পরবর্তী ক্ষেত্রে তার সাথে সম্পর্ক জড়িয়ে পড়েন তিনি ।কিন্তু হঠাৎ করে বৃহস্পতিবার বেলা বারোটা নাগাদ হূদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায় অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লা ।বলিউড এবং টলিউড ইন্ডাস্ট্রি আছে বিরাট ক্ষতি বলে মনে করছেন অনেকে ।

সিদ্ধার্থ শুক্লা ১০ ডিসেম্বর ১৯৮০ সালে জন্ম নেন । তিনি মুম্বইয়ের একজন ভারতীয় টেলিভিশন অভিনেতা মডেল এবং উপস্থাপক ছিলেন। তিনি ২০০৮ সালের ধারাবাহিক বাবুল কা অঙ্গন ছুটে নায় অভিনয়ের মাধ্যমে টেলিভিশন জগতে অভিষেক করেছিলেন। অতঃপর তিনি লাভ ইউ জিন্দেগী, বালিকা বধু এবং দিল সে দিল তাকের মতো ধারাবাহিকের মূল চরিত্রে অভিনয় করার মাধ্যমে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন। এছাড়াও তিনি ঝলক দিখলা যা ৬, ফিয়ার ফ্যাক্টর: খাত্রোঁ কে খিলাড়ি ৭ এবং বিগ বস ১৩-এর মতো রিয়্যালিটি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছিলেন; যার মধ্যে ফিয়ার ফ্যাক্টর: খাত্রোঁ কে খিলাড়ি ৭-এর শিরোপা জয়লাভ করেছিলেন।

তার প্রেমিকা সেহেনাজ এর বুক ফাটা কান্নার আওয়াজ প্রতিনিয়ত ভাইরাল হচ্ছে নেট মাধ্যমে । এমন তো কথা ছিল না ।আমাকে ছেড়ে এভাবে চলে গেলে গোটা পৃথিবী আমার হাতে তুলে দিয়ে গেলে ।আর কয়েকটা দিন পর আমাদের বিয়ে ছিল । কত প্ল্যান করেছিলাম আমরা ।কিন্তু এটা কিভাবে হয়ে গেল ।সিদ্ধার্থের মতন কেউ আমাকে ভালবাসতে পারবেনা । সিদ্ধার্থ ছাড়া সেহেনাজ সম্পূর্ণ অচল ঠিক এই বক্তব্য রেখে বুকফাটা কান্নায় ভেঙে পড়েছে তার প্রেমিকা সেহেনাজ ।তার মৃ-ত্যু-তে শো-কাহ-ত তাঁর অনুরাগীরা ।যদিও অনেকে মনে করছে এটা স্বাভাবিক মৃ-ত্যু নয় এটা কোন তদন্তের দাবি করেছে তার বহু অনুরাগীরা ।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button