কলকাতা থেকে পুরী মাত্র ৪ ঘন্টায়! হাওড়া থেকে ৩ টি রুটে দ্রুতগামী ট্রেন চালু করতে চলেছে রেল!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- যদি আপনাদেরকে এই মুহূর্তে বলা হয় যে আপনি মাত্র চার ঘন্টা তে পৌঁছে যাবেন হাওড়া থেকে পুরী ঘটনা টা নিশ্চয় আপনার কাছে অবাক লাগবে। পাশাপাশি যদি আপনাকে এমনটা বলা হয় যে মাত্র 14 ঘন্টা তে পৌঁছে যাবেন আপনি মুম্বাই তাহলে নিশ্চয়ই ঘটনাটা আরো অবাক করবে আপনাদেরকে। কিন্তু অবাক হবার বিন্দুমাত্র কারণ নেই।

কারণ বাস্তবে এমন ঘটনা ঘটতে চলেছে আর মাত্র কয়েকটা দিনের মধ্যে সম্প্রতি ভারতীয় রেলের তরফ থেকে এমন একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। যার মাধ্যমে দূরত্বকে হাতের মুঠোয় আনা সম্ভব। হাওড়া থেকে চালু করা হচ্ছে হাই স্পিড ট্রেন যার মাধ্যমে আপনি মুম্বাই পুরি পৌঁছে যাবেন নির্দিষ্ট সময়ের আগেই।

প্রতিনিয়ত ও যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হচ্ছে উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা কে সামনে রেখে মানুষ চেষ্টা করছে যাতে অধিকতম দূরত্ব অতিক্রম করা যায় কম সময়ে। এই পরিকল্পনাকে সামনে রেখে হাওড়া থেকে পুরি হাওড়া থেকে মুম্বাই এবং হাওড়া থেকে চেন্নাই এই তিনটে হাই স্পিড ট্রেন ১৬০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় চালানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করল ভারতীয় রেল।

দেশের ৮টি রুটে হাই স্পিড ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে রেল। তার মধ্যে ৩টি রুটের ট্রেন চলবে হাওড়া স্টেশন থেকে। রেল সূত্রে খবর, হাওড়া-মুম্বই রুটে হাইস্পিড ট্রেন পাড়ি দেবে ১ হাজার ৯৬৫ কিলোমিটার। যেখানে দুরন্ত এক্সপ্রেসে এখন মুম্বই যেতে সময় লাগে প্রায় ২৭ ঘণ্টা, সেখানে হাইস্পিড ট্রেনে লাগবে প্রায় ১৪ ঘণ্টা।

হাওড়া-চেন্নাই রুটে ১ হাজার ৬৫২ কিলোমিটার পাড়ি দেবে হাইস্পিড ট্রেন। এখন চেন্নাই মেলে সময় লাগে প্রায় ২৮ ঘণ্টা। হাইস্পিড ট্রেনে সময় কমে হবে প্রায় ১৩ ঘণ্টা। হাওড়া থেকে পুরীর দূরত্ব প্রায় ৫০২ কিলোমিটার। শতাব্দী এক্সপ্রেসে সময় লাগে প্রায় সাড়ে ৭ ঘণ্টা। হাইস্পিড ট্রেনে প্রায় চার ঘণ্টাতেই পৌঁছে যাওয়া যাবে পুরী।

এছাড়া দেশের আরও ৫টি রুটে চালু হবে হাইস্পিড ট্রেন। রেল সূত্রে খবর, তার মধ্যে রয়েছে, দিল্লি থেকে চেন্নাই। মুম্বই থেকে চেন্নাই। চেন্নাই থেকে ব্যাঙ্গালোর। ব্যাঙ্গালোর থেকে হায়দরাবাদ। এবং চেন্নাই থেকে হায়দরাবাদ।হাইস্পিড ট্রেনের জন্য তৈরি হচ্ছে উপযুক্ত রেক, ট্র্যাক ও বিশেষ সিগন্যালিং ব্যবস্থা।

আগামী ২ মাসের মধ্যে প্রতিটি জোনের হাতে সমীক্ষা রিপোর্ট জমা পড়ার কথা। এই খবর সামনে আশাতে আপামর দেশবাসী যেমন খুশি হয়েছেন তেমনি তারা আশাবাদী যে আগামী দিনে তারা অধিকতম দূরত্ব অতিক্রম করতে পারবেন স্বল্প সময়ের মধ্যে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button