বাবা-মা সবার ওপরে! বাবা মা ঈশ্বর, একটা গোটা মন্দির তৈরি করে নজির গড়লেন বর্ধমানের এই ব্যক্তি!

নিজস্ব প্রতিবেদন:আধুনিক যুগের শুরুর সাথে সাথেই বিভিন্ন জায়গায় বৃদ্ধাশ্রম এর বাড়বাড়ন্ত লক্ষ্য করা গিয়েছে। অনেকেই আজকাল নিজের বৃদ্ধ বাবা-মাকে সাথে রাখতে চান না।বৃদ্ধ হয়ে যাওয়াটাকেই অনেকে অবাঞ্ছনীয় বলে মনে করেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ছেলেমেয়েরা আর বাবা-মায়ের কদর বুঝতে চান না।

একটা বয়সে এসে শেষ পর্যন্ত তাদের ঠাঁই হয় বৃদ্ধাশ্রমের মধ্যে। কিন্তু এই স্বার্থপরের দুনিয়া তে বসবাস করেও নজির গড়লেন এক ব্যক্তি।আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন ঠিক এই বিষয়কে কেন্দ্র করে লেখা হয়েছে। তাহলে আসুন আর দেরি না করে শুরু করা যাক।

যেখানে অনেক সন্তানেরা নিজেদের বাবা— মাকে বৃদ্ধাশ্রমে পাঠাচ্ছেন সেই জায়গায় নিজের বাবা-মায়ের উদ্দেশ্যে মন্দির করলেন বর্ধমানে বসবাসকারী এক ব্যক্তি। এই ব্যক্তির নাম কামিনী বিশ্বাস।বাবা-মাকে ভগবান হিসেবে কল্পনা করে তাদের প্রতিকৃতি তৈরি করে মন্দির তৈরি করেছেন তিনি। কামিনী বাবুর বাবা মায়ের মূর্তি সেই মন্দিরে পূজিত হয় ভগবান রূপে।

প্রসঙ্গত কামিনী বিশ্বাস পেশায় একজন অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মী।শুধুমাত্র বাবা-মায়ের উদ্দেশ্যে মন্দির তৈরি নয় এই মন্দিরের ভিতরে জনসাধারণকে সুবিধা দেওয়ার জন্য দাতব্য চিকিৎসালয়ও খুলেছেন তিনি। তার এই উদ্যোগকে সম্মান জানিয়েছেন স্থানীয় সকল বাসিন্দারা। আজকের এই স্বার্থপর পৃথিবীতে তার মত ব্যক্তি দেখতে পাওয়াই দুষ্কর। তাই আমরা ব্যক্তিগতভাবে কামিনী বাবুকে অত্যন্ত শ্রদ্ধা জানাই।আমরা আশা করব পৃথিবীর সকল সন্তানেরা যেন ঠিক এভাবেই নিজেদের অভিভাবকদের প্রতি সম্মান বজায় রাখার চেষ্টা করেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button