একসময় সিনেমার পর্দায় অভিনয় করেছেন স্বয়ং উত্তম কুমারের সঙ্গে ।কিন্তু পরবর্তী জীবনে করতে হয়েছে রাস্তায় নেমে ভিক্ষা এই অভিনেতাকে!

নিজস্ব সংবাদদাতা: বেশ কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে একটি ঘটনা সকলের সামনে আসে এবং যে ঘটনা সকলকে না-ড়া দিয়েছে। মহানায়ক উত্তম কুমারের সঙ্গে ‘প্রতিশোধ’ ছবিতে সহ অভিনেতার কাজ করেছিলেন শংকর ঘোষাল, এছাড়াও সত্য বন্দোপাধ্যায়ের ‘নহবত’ নাটকেও ‘বরের পুরুত’ হিসেবে অভিনয় করতে দেখা যায় তাকে। হঠাৎই একদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভেসে ওঠে এই শংকর ঘোষাল নাকি অর্থাভাবে নিজের সংসার ঠিকমত চালাতে পারছেন না।

এক সময়ে নামকরা একজন অভিনেতা বর্তমানে কাজের জন্য ঘুরছেন সকলের দরজায় দরজায়। তবুও কাজের কোন খোঁজ নেই ,তার ফলে সংসার চালানোর সামর্থ্য হারিয়েছেন তিনি। এই অভিনেতার জন্য সর্বপ্রথম সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা ও সব্যসাচী চৌধুরী। কিছুদিন ধরে ঐন্দ্রিলা এবং সব্যসাচী ও সোশ্যাল মিডিয়ার একটি আলোচিত জুটি। এবারে শংকর ঘোষালের ব্যাঙ্ক ডিটেলস সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিয়ে সকলের সাহায্য চান তারা।

মুহূর্তের মধ্যেই তার একাউন্টে চল্লিশ হাজার টাকা জমা হয় কিন্তু সেখান থেকে মাত্র তিন হাজার টাকা নিয়ে এক দুঃস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন শংকর ঘোষাল। এরপর তার দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে জি বাংলার রান্নাঘরের সুদীপা। সুদীপা জানিয়েছে শংকর বাবুর অর্থ সাহায্যের কোন দরকার নেই ,তার দরকার কাজের তাই তিনি শংকর ঘোষাল কে নিয়ে একটি জমজমাট এপিসোড করেন রান্নাঘরে।

এইভাবে শংকর বাবুকে একটা কাজ দিয়ে কিছুটা হলেও তার মন হালকা করতে চেয়েছে সুদীপা। এ প্রসঙ্গে সুদীপা জানিয়েছে ভেবেছিলাম এই প্যানডেমিক অবস্থায় “কিছুদিন বন্ধ থাকবে শুটিং। কিন্তু শংকরদার জন্য সিদ্ধান্ত বদলাতে হলো ,শুটিং করলাম দারুন লাগলো ।যারা ওকে সাহায্য করতে ওর অ্যাকাউন্ট নাম্বার চাইছেন তাদের কে আমার আন্তরিক ধন্যবাদ। কিন্তু ওর সাহায্য নয় কাজের দরকার ,অভিনেতা তো লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশন শুনে দেখুন কত খুশি আমরা ওনাকে পেয়ে আপ্লুত”।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button