পোস্ট অফিসের নতুন প্রকল্প! মাসে মাত্র ১৫০০ টাকা করে জমা করলে পাবেন ৩৫ লক্ষ টাকা রিটার্ন! জেনে নিন খুঁটিনাটি।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আপনার কি পোস্ট অফিসে অ্যাকাউন্ট আছে বা আগামী দিনে কি পোস্ট অফিসে একাউন্ট খোলার কোনো চিন্তা-ভাবনা করেছেন ?তাহলে হতে পারে আজকের প্রতিবেদন সবথেকে লাভজনক আপনার জন্য ফিক্সড। জিরো কিংবা রেকারিং ডিপোজিট সবার ক্ষেত্রে কিন্তু একটা বিশ্বস্ত প্রতিষ্ঠান হয়ে গেছে ভারতীয় ডাক বিভাগ অর্থাৎ পোস্ট অফিস।

ব্যাংক এর পাশাপাশি মানুষ এখন পোস্ট অফিসে একাধিক প্রকল্পের মাধ্যমে টাকা বিনিয়োগ করছে যাতে পরবর্তী সময়ে সুদ সমেত মোটা অংকের টাকা রিটার্ন পায় ।তবে সম্প্রতি এমনটাই জানানো যাচ্ছে যে আপনি যদি প্রতি মাসে 1500 টাকা অর্থাৎ প্রতিদিন যদি 50 টাকা করে জমা করেন এই প্রকল্পের মাধ্যমে তাহলে কিন্তু নির্দিষ্ট সময় পর আপনি 35 লক্ষ টাকা রিটার্ন পাবেন।

এই প্রকল্পের আবেদন করার জন্য কি কি শর্ত রয়েছে তা দেখে নিন এক নজরে পাশাপাশি এই প্রকল্পের নাম হচ্ছে গ্রাম সুরক্ষা যোজনা।
১) এই প্রকল্পের আবেদন করার জন্য অতি অবশ্যই তাকে ভারতের নাগরিক হতে হবে

২) আবেদনকারীর বয়স 19 বছর থেকে 59 বছরের মধ্যে হতে হবে ।

৩) এই প্রকল্পের মাধ্যমে আপনি 10 হাজার থেকে ১০ লক্ষ টাকার প্রিমিয়াম কিনতে পারেন যেটা নির্দিষ্ট সময় পর অর্থাৎ 40 বছর পর সুদ সমেত গ্রাহককে ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

৪) তবে যদি কোনো কারণে গ্রাহকের মৃত্যু হয় তাহলে সে ক্ষেত্রে পরিবারের হাতে সে টাকা তুলে দেওয়া হবে

৫) তবে কোনো গ্রাহক যদি চান তাহলে তিন বছরেও প্রিমিয়াম তুলে নিতে পারেন। সে ক্ষেত্রে লাভের টাকা তাকে প্রদান করা হবে না। এক্ষেত্রে পোস্ট অফিস প্রতি 1000 টাকা তে 65 টাকা করে দিচ্ছে।

প্রিমিয়াম পেমেন্টের ক্ষেত্রে মাসিক, ত্রৈমাসিক, অর্ধ-বার্ষিক বা বার্ষিকভাবে দিতে পারবেন উপভোক্তা। তবে কোন কারণে নির্ধারিত প্রিমিয়ামের দিন পার হয়ে গেলে, গ্রাহককে ৩০ দিনের অতিরিক্ত সময় দেওয়া হবে।যদি কোন 19 বছর বয়সী ব্যক্তি 10 লক্ষ টাকার পলিসি কেনেন,

সেক্ষেত্রে 55 বছরের জন্য প্রতি মাসে তাঁকে প্রিমিয়াম দিতে হবে 1515 টাকা, 58 বছরের জন্য দিতে হবে 1563 টাকা এবং 60 বছরের জন্য পড়ছে 1411 টাকা। রিটার্নে গ্রাহক, 55 বছরের জন্য পাবেন 31.60 লক্ষ টাকা, 58 বছরের জন্য পাবেন 33.40 লক্ষ টাকা এবং 60 বছরের জন্য পাবেন 34.60 লক্ষ টাকা।তাহলে ভাবনা চিন্তা কিসের যদি আপনার পোস্ট অফিসে অ্যাকাউন্ট থেকে থাকে তারা রাজি এই প্রকল্পের সুবিধা নিন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button