news of mutual f Mutual fund : পাবেন দারুণ লাভ, ডবল রিটার্ন পেতে 15-15-25 ছকে এইভাবে বিনিয়োগ করুনund

আকাশ বার্তা অনলাইন ডেস্ক – এমন অনেক মানুষই আছে যারা মিউচুয়াল ফান্ডে ইনভেস্ট করতে চায়। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় এতে বিনিয়োগ করে লাভ করার সঠিক নিয়ম না জানাই তারা বিপদে পড়েন। তবে অনেকেই আবার নিয়ম মাফিক বিনিয়োগ করে কোটিপতিও হয়ে যান। তবে কোটি টাকা উপার্জন করা তো আর মুখের কথা নয়। কিন্তু এই উপার্জন করা সম্ভব। আর তার জন্য প্রয়োজন হয় সঠিক নিয়ম। এই নিয়মটিই মূলত ১৫-১৫-১৫ মিউচ্যুয়াল ফান্ড বিনিয়োগ হিসেবেই পরিচিত। আজ এই প্রতিবেদনে জেনে নেওয়া যাক এই বিনিয়োগ সম্পর্কিত নিয়মটি নিয়ে।

রিটার্ণের পরিমান – এই নিয়মটি মূলত স্টক মার্কেট গুলির সাথে বিশেষ পরিচিত। স্টক মার্কেট সম্পর্কে প্রায় সকলেই কম বেশী জানা রয়েছে। সেখানে প্রায় সব সময়ই ওঠা নামা লক্ষ্য করা যায়। তবে এই মার্কেটে যদি আপনি প্রতি বছর ১৫ শতাংশ হারে রিটার্ন পেতে চান সেক্ষেত্রে আপনার দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগ প্রয়োজন। কারন প্রতি বছরই ১৫ শতাংশ রিটার্ন না দিলেও দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে তা বার্ষিক ১৫ শতাংশ রিটার্ণের কাছাকাছি চলে আসে।

১৫-১৫-১৫ বিনিয়োগের নিয়ম – নামটি অদ্ভুত লাগলেও এই তিনটি ১৫ র পেছনে রয়েছে যথার্থ কারন। মূলত বৃদ্ধির হার,সময় কাল এবং সঞ্চয়ের মাসিক পরিমান কে নির্দেশ করছে এই তিনটি ১৫। সহজ ভাষায় বললে ব্যাপারটি দাঁড়ায় আপনি যদি বছরে ১৫ শতাংশ বৃদ্ধির লক্ষ্য মাত্রা নিয়ে প্রতি মাসে ১৫০০০ টাকা করে বিনিয়োগ করেন সেক্ষেত্রে ১৫ বছর ধরে এই বিনিয়োগ করলে আপনার কাঙ্খিত লক্ষ্যমাত্রা তথা ১ কোটি টাকার অঙ্কে পৌঁছাবে। এক্ষেত্রে আপনি মাসিক ১৫,০০০ টাকা করে ১৫ বছর বিনিয়োগ করলে আপনার মোট বিনিয়োগের পরিমান দাঁড়াবে ২৭ লক্ষ টাকা। সেক্ষেত্রে আপনার আনুমানিক করপাস দাঁড়াবে প্রায় ১ কোটি টাকা। অর্থাৎ ১৫ বছরে আপনার লাভের পরিমান দাঁড়াবে ৭৩ লক্ষ টাকা।

অর্থাৎ এটি আপনার দীর্ঘ মেয়াদী সঞ্চয়ের একটি হেডস্টার্ট দেওয়া। যেখানে আপনি যদি বার্ষিক রিটার্ন পান ১২ শতাংশ সেখানে আপনি একটি বড়ো করপাস এর জন্য স্টেপ-আপ SIP ব্যবহার করবেন। পরবর্তীতে আপনার লক্ষ্য স্থির রেখে সবকিছু বিবেচনা করে সেটিতে সঞ্চয় শুরু করবেন SIP এর প্রভাব – ১৫-১৫-১৫ বিনিয়োগের নিয়োগের মূল উদ্দেশ্য হলো বিনিয়োগের SIP মোড এবং চক্রবৃদ্ধি। মূলত স্টক মার্কেটের ওঠা নামা নিয়ন্ত্রণ করতে SIP এর মাধ্যমে ইউনিট কিনে রাখা হয়। এতে আপনার দীর্ঘমেয়াদি সঞ্চয়ের অভ্যাস যেমন গড়ে ওঠে ঠিক তেমনই প্রলোভন থেকেও দূরে থাকতে পারেন। পাশাপাশি এই একই SIP ফোলিওতে আপনি ইচ্ছে করলেই যুক্ত করতে পারেন আরো অনেক তহবিল।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button