Mutual fund investment : অল্প সময়ে দুর্দান্ত রিটার্ন, বিনিয়োগ করুন এই কয়েকটি দুর্দান্ত মিউচুয়াল ফান্ডে

আকাশবার্তা অনলাইন ডেস্ক: আপনি যদি প্রবীন নাগরিক হয়ে থাকেন এবং বাজারে বিনিয়োগ বিষয়ে ভাবনা চিন্তা করে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনার জন্য দারুণ লাভজনক হতে পারে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ। তবে এক্ষেত্রে ঝুকির পরিমাণও কিন্তু কম নয়।এখান থেকে আপনি যেমন সর্বাধিক লাভ করতে পারবেন তেমনি লোকশানের সম্ভাবনাও রয়েছে।

কারণ মিউচুয়াল ফান্ডের রিটার্ন নির্ভর করে শেয়ার মার্কেটের ওপর। এক্ষেত্রে ন্যাভ পরে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা মাথায় রেখেই আপনাকে বিনিয়োগ করতে হবে। তবে প্রবীন নাগরিকদের আয়ের জন্য এর থেকে ভাল বিনিয়োগের জায়গা আর হতে পারে না।

কোথায় বিনিয়োগ করবেন? হাতে বাছাই করা বা গুটিকয়েক মিউচুয়াল ফান্ড নিয়ে আপনি বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। এক্ষেত্রে বাজারে রিটায়ারমেন্ট শ্রেণীর ফান্ড রয়েছে, যা প্রবীন নাগরিকদের উপযুক্ত হতে পারে। এক্ষেত্রে আপনি এককালীন ইনভেস্ট করতে পারবেন এবং পরে আবার তাতে উদ্বৃত্ত সম্পদ জোড়া দিতে পারবেন।

এবং নির্দিষ্ট সময় পর সিস্টেমেটিক পথে প্রতি মাসে বা কোয়ার্টারে SWP -র মাধ্যমে নির্দিষ্ট পরিমাণমাফিক টাকা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠাতে পারবেন।এছাড়া এই ইকুইটি ফান্ডের পরিবর্তে আপনি ব্যালেন্স ফান্ডও বেছে নিতে পারেন। এক্ষেত্রে ঝুকি সামান্য কম। এখানেও আপনি SWP-এর মাধ্যমে টাকা তুলতে পারবেন।

বিড়লা মিউচুয়াল ফান্ড: ব্যালেন্সড মিউচুয়াল ফান্ডের উদাহরণ হতে পারে বিড়লা মিউচুয়াল ফান্ড। দেখুন এই ফান্ডে বিনিয়োগ করার বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য-
. এই বিনিয়োগ ইকুইটি ভিত্তিক হলেও ডেটের পরিমাণ যথেষ্ট বেশি।
. যদি আপনি ২০১১ সালে এই ফান্ডে ১০০০ টাকা বিনিয়োগ করেন তবে এখন তা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৬,০০০ টাকায়।
. ২ নভেম্বর তারিখের ন্যাভ অনুযায়ী এই ফান্ড থেকে বিগত ৫ বছরে ৬০% রিটার্ন পাওয়া গিয়েছে।
4. এই পোর্টফোলিও-তে প্রধান প্রধান স্টকগুলির মধ্যে রয়েছে ICICI BANK, HDFC BANK, RELIANCE INDUSTRIES, ITC ইত্যাদি।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button