সারাবছর ধরে বাড়িতে টবে ফলান প্রচুর ধনেপাতা! দেখে নিন দারুন সহজ পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-শীতকাল চলছে আর শীতকাল মানেই নতুন নতুন শাকসবজির দেখা পাওয়া যাবে বাজারে ।তার পাশাপাশি শীতকাল মানে বাঙালি নতুন নতুন ধরনের খাবারের রেসিপি তৈরি করার প্রবণতা বা ইচ্ছে জাগে মনের মধ্যে । প্রতিটি রান্না করার ক্ষেত্রে মূলত যে ধরনের সবজি সবথেকে বেশি ব্যবহৃত হয় সেটি হল ধনেপাতা।

বর্তমানে যে হারে বেড়ে চলেছে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম কত বাজার থেকে গিয়ে ধনেপাতা কেনার থেকে বাড়িতে ধনেপাতা চাষ করা লাভজনক। একদমই ঠিক শুনেছেন ।আজকের এই প্রতিবেদন মাধ্যমে জেনে নিন কিভাবে বাড়িতে সারাবছর ধনেপাতা চাষ করবেন।।

আপনি যদি বাগান প্রেমী হন এবং ফসল ফলাতে চান বাড়ির মধ্যে কিন্তু বাড়িতে পর্যাপ্ত পরিমান জায়গা থাকা না থাকার দরুন আপনি হতাশ হয়ে পড়েছেন ,তাহলে আমরা বলব এবার আর হতাশ হওয়া দরকার নেই ।কারণ বাড়ির মধ্যেই আপনি আপনার পছন্দের ফসলটি চাষ করতে পারবেন এবং সেটি টবে । সে রকমই টবে চাষ হয় এমন একটি ফসলের নাম হল ধনেপাতা।

ধনে পাতার উপকারিতা সম্পর্কে আমরা প্রত্যেকে জানি কমবেশি ।এর পাশাপাশি ধনেপাতা রান্নার মধ্যে দিলে এক আলাদা মাত্রায় স্বাদ আসে । তাছাড়া আরও বিভিন্ন কাজে ধনেপাতা ব্যবহৃত হয়ে থাকে। তো চলুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে বাড়ির মধ্যেই মাটি ছাড়া ধনেপাতা চাষ করা যেতে পার।

প্রথমে আপনাকে নার্সারি থেকে ধনে পাতার বীজ কিনে আনতে হবে এবং বীজ গু-লি-কে কে ভালো ভাবে ভেঙ্গে নিতে হবে। খেয়াল রাখবেন সেগুলি যেন দুটি অংশে ভাঙ্গে ।এমনটা যেন না হয় যে পুরো বীজগুলো গুড়ি হয়ে গেল। তাহলে কিন্তু হবেনা ।এরপর একটি পাত্রে জল নিন এবং জল দিয়ে পাত্র টি পরিপূর্ণ করুন।

তারপর এটি তারজালি দেওয়া ঝুড়ি পাত্রের উপর রাখুন এবং সেই ঝুড়ির মধ্যে দুই অংশে ভাগ করা ধনেপাতার বীজগুলি ছড়িয়ে দিন । খেয়াল রাখবেন এক জায়গায় দিলে হবেনা ঝুড়ির মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে।এই অবস্থায় সমগ্র অংশটিকে এমন একটি জায়গা রাখতে হবে যেখানে রোধের পরিমাণ মাঝারি ।অর্থাৎ খুব বেশিও না কমও না।

এই অবস্থায় ৭ থেকে ১০ দিন রেখে দিলেই আপনি দেখতে পাবেন সে বীজগুলি থেকে ছোট ছোট ধনেপাতা উৎপন্ন হয়েছে। এবং সমগ্র ব্যাপারটিকে আরো দশ দিনের মতন রেখে দিলে আপনি উচ্চমানের ধনেপাতা পাবেন বাড়িতেই বসে। তাহলে চিন্তা কিসের আজই এই পদ্ধতিতে চাষ করুন বাড়িতে ধনেপাতা ।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button