বাড়ির উঠোনে বা ছাদে টবে শসা চাষ করার দারুন সহজ পদ্ধতি, এইভাবে একবার চাষ করলে সাতদিনে হবে পোকা ছাড়া দুর্দান্ত ফলন, রইলো পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন:বর্তমানে আমাদের সমাজে গাছের প্রয়োজনীয়তা অত্যধিক। যেভাবে মানুষ গাছ কেটে এবং নষ্ট করে চলেছে তার ফল যে খুব শীঘ্রই ভোগ করতে চলেছি আমরা জানি। বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই দেশে থাবা বসিয়েছে করোনাভাইরাস এর দ্বিতীয় ঢেউ। এমতাবস্থায় খুব শীঘ্রই মানুষের ফুসফুস আ-ক্রা-ন্ত হচ্ছে।তার ফলস্বরূপ শ্বাস-প্রশ্বাস সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যা দেখা যাচ্ছে মানুষের মধ্যে। চাহিদা বাড়ছে অক্সিজেনের। কিন্তু উপযুক্ত অক্সিজেনের যোগান প্রায় নেই বললেই চলে।অর্থাৎ আমরা সকলেই বুঝতে পারছি একটি গাছ কিভাবে মানুষের প্রাণ রক্ষা করতে পারে।

আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা সযত্নে গাছ লালন পালন করার বিশেষ কিছু পদ্ধতি আলোচনা করব।যদি আপনি অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই শশা গাছ লাগিয়ে ফলন পেতে চান তাহলে অবশ্যই হাতে সময় নিয়ে আমাদের এই প্রতিবেদনটি শেষ পর্যন্ত পড়ুন। এই পদ্ধতিতে প্রথমেই আপনাকে কয়েকটি টিনের বাক্স নিয়ে নিতে হবে।

কোনরকম খাবারের বাক্স হলেও চলবে। এবার এই বাক্স গুলির মধ্যে অর্ধেক পরিমাণ মাটি নিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন এগুলো যেন উপযুক্ত সার দেওয়া হয়।এরপর এই মাটির মধ্যে কয়েকটি শসার বীজ ছড়িয়ে দিন। এবং বাক্সটির ধার থেকে তারের সাহায্যে নিচের দিকে ঝুলন্ত একটি জলের বোতল এর ব্যবস্থা করুন। এরপর জলের বোতলের মধ্যে ভর্তি করে জল ভরে দিন।বোতলের মুখটি হাল্কা খুলে রাখুন যাতে সেখান থেকে নির্দিষ্ট সময় অন্তর জল পড়তে পারে।

দেখবেন কিছুদিন পর ধীরে ধীরে বীজ থেকে চারা উৎপন্ন হচ্ছে। এরপর সযত্নে এই চারা গুলিকে নিয়ম মত লালন-পালন করুন। টব গুলিকে এমন জায়গায় রাখবেন যাতে এখানে সূর্যের আলো সঠিকভাবে প্রবেশ করতে পারে। এরপর ঠিক এইভাবে ৬০ দিন কেটে যাওয়ার পর দেখবেন চারাগুলি সম্পূর্ণ বড় হয়ে গিয়েছে। এবং খুব শীঘ্রই এতে ভালো ফলন ধরতে শুরু করবে।

লকডাউনে বাড়িতে বসে না থেকে খুব সহজ পদ্ধতিতে একেবারেই ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করে এভাবে আপনারা শসা চাষ করতে পারেন। শসা একটি অত্যন্ত উপকারী ফল। মানুষের পুষ্টি রক্ষায় এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আমাদের এই প্রতিবেদনটি কেমন লাগলো তা জানাতে অবশ্যই ভুলবেন না। এবং যদি এই পদ্ধতিটি বানাতে আপনার কোন অসুবিধা হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে প্রতিবেদনের সাথে থাকা ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button