ঘুমন্ত শিশুর বিছানায় উঠে দংশন করলো ভারতের সব থেকে বি-ষাক্ত কোবরা সাপ! ঘটলো চরম বিপত্তি! ঝড়ের বেগে ভাইরাল ভিডিও।

ঘুমন্ত শিশুর বিছানায় উঠে দংশন করলো ভারতের সব থেকে বি-ষাক্ত কোবরা সাপ! ঘটলো চরম বিপত্তি! ঝড়ের বেগে ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-মানুষ অনেকখানি অন্ধকারের মধ্যে ঢুকে রয়েছে এখনো পর্যন্ত । বর্তমান সময়ে যেখানে আমাদের আশেপাশের পরিবেশ সব কিছু সময়ের সাথে সাথে আধুনিক হচ্ছে সেখানে কিন্তু মানুষের মন এবং বিশ্বাস কে কখনো আধুনিক করা সম্ভব হয়ে উঠছে না অনেক ক্ষেত্রে ।কারণ গ্রামে গঞ্জে গেলে আপনি দেখতে পাবেন বিভিন্ন ধরনের কুসংস্কারে আচ্ছন্ন রয়েছে প্রতিটি মানুষ ।বিভিন্ন ওঝা বা পীর বাবার শরণাপন্ন হয় তারা বিপদের সময়।

আগেকার যুগের যদি কাউকে সাপে ছোবল মারতো তাহলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরিবর্তে তাকে নিয়ে যাওয়া হতো বিভিন্ন তান্ত্রিকের কাছে । সেখানে অনেকক্ষণ ধরে ঝাড়ফুঁক করা হতো । যার ফলে অনেকটা সময় অতিক্রম হয়ে যেত এবং সেই মুহূর্তে সাপের বিষ গোটা শরীরের মধ্যে ছড়িয়ে পড়তো ।তারপর সে মানুষটিকে বাঁচানো সম্ভব হতো না।

এখনও পর্যন্ত সেই ঘটনার চিত্র মাঝে মধ্যে ফুটে ওঠে বিভিন্ন জায়গাতে ।তবে বারবার মানুষকে এটা বলে সচেতন করা হচ্ছে যে যদি কোনো ব্যক্তিকে সাপে কামড়ায় তাহলে কোন তান্ত্রিক এর কাছে না নিয়ে গিয়ে সোজা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া সবথেকে বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

সম্প্রতি ইউটিউবে একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে সেখানে দেখা গেছে যে উড়িষ্যার একটি গ্রামে 17 মাসের একটি বাচ্চা মেয়েকে কমন কেরেট নামক একটি বিষাক্ত সাপ কামড়েছে এই সাপটি হলো ভারতের সব থেকে বিষাক্ত সাপ। একদমই ঠিক এটি কোবরা এর থেকেও অনেক বেশি বিষাক্ত ।বাড়ির লোকেরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরিবর্তে বিভিন্ন তান্ত্রিক কাছে নিয়ে গিয়েছিল যার ফল অনেকটা

সময় অতিক্রম হয়ে গেছে সেখানে এরপর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর তাকে চিকিৎসা অধীনে রাখা হলেও এখনও পর্যন্ত সেই বাচ্চা মেয়ের মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে ।যদিও পরবর্তী ক্ষেত্রে কোমল স্নেক রেস্কিউ টিম নামক এক দল সাপুড়ে এসে সেটিকে উদ্ধার করে নিরাপদ জায়গাতে ছেড়ে দেয় । ইতিমধ্যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে সাইবার দুনিয়াতে।

,

Leave a Reply

Your email address will not be published.