বদলে গেল সেভিংস একাউন্টের গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম! এই ব্যাংকের সমস্ত গ্রাহকদের জন্য বড় খবর! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- 2019 সালের পর থেকে আমাদের ভারতবর্ষের চিত্রটা কিন্তু ক্রমশ দ্রুত পাল্টাতে থাকে। তার পাশাপাশি 2019 সালের একদম শেষ লগ্নে এসে ভারতবর্ষের অর্থনৈতিক অবস্থার পরিবর্তন কিন্তু হয়েছে ব্যাপক মাত্রায়।তার কারণ নতুন করে কাউকে বলার অপেক্ষা রাখে না। দীর্ঘ দুই বছর ধরে চলতে থাকার ফলে অর্থনৈতিক অবস্থা সম্পন্ন রকম ভাবে ভেঙ্গে পড়েছে ভারতবর্ষের অধিকাংশ পরিবারের।

সেই অবস্থায় দাঁড়িয়ে যে সমস্ত সরকারি এবং বেসরকারি ব্যাংক গুলি রয়েছে তারা সুদের পরিমাণ ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে ।সেই তালিকা থেকে বাদ যায়নি পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক ।আপনি কি পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের গ্রাহক তাহলে এই নতুন দুঃসংবাদ আপনার জন্য। করোনার এই পরিস্থিতিতে আমরা প্রত্যেকেই নাজেহাল। সবকিছুই এলোমেলো হয়ে গিয়েছিল বিগত দেড় বছরের কিন্তু পরিস্থিতি আবার স্বাভাবিক হচ্ছে ধীরে ধীরে।

মানুষ কাজে ফিরতে শুরু করেছে। তবুও হঠাৎ করেই সমস্ত ব্যাংক কর্তৃপক্ষ গুলি যে হারে তাদের সুদের পরিমাণ কমিয়ে দিচ্ছে তাতে আগামী দিনে কত মানুষ ব্যাংকের সাথে যুক্ত থাকবে সে ব্যাপারে রয়েছে বড় অনিশ্চয়তা’।সম্প্রতি পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক এর তরফ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। যে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তারা জানিয়েছে যে পুনরায় তারা তাদের সেভিংস একাউন্ট এর গ্রাহকদের জন্য সুদের পরিমাণ কমিয়ে আনবে।

এর আগে অর্থাৎ এতদিন ধরে সেভিংস একাউন্ট এর ক্ষেত্রে বছরে 2 টাকা 90 পয়সা পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক অর্থাৎ আপনি যদি 100 টাকা জমা রাখতে তাহলে এক বছর পর সেটা 102 টাকা 90 পয়সা তে পরিণত হতো। কিন্তু সম্প্রতি বিজ্ঞপ্তিতে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক জানিয়েছে যে এবার সেভিংস একাউন্টে ক্ষেত্রে সুদের পরিমাণ 2 টাকা 80 পয়সা এবং 2 টাকা 85 পয়সা প্রতি বছর হতে চলেছে।

যে সমস্ত গ্রাহকদের সেভিংস একাউন্টে 10 লক্ষের নিচে টাকা রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে সুদের পরিমাণ টাকা 2 টাকা 80 পয়সা প্রতিবছর ।অপরদিকে যে সমস্ত মানুষের সেভিংস একাউন্টে অর্থের পরিমাণ1প লক্ষ বা তার বেশি তাদের ক্ষেত্রে সুদের পরিমাণ 2 টাকা 85 পয়সা প্রতিবছর। কার্যত এই ঘটনা সামনে আশাতে রীতিমতো চিন্তিত হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষেরা।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button