পাঁচ টাকার নোট থাকলেই হতে পারেন লক্ষাধিপতি, যেখানে পাঁচ টাকার নোট জমা দিলে পাবেন টাকা, রইলো বিস্তারিত!

নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রায়শই বেশ কিছু অদ্ভুতূড়ে জিনিস ভাইরাল হয়। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এমনই এক বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে চলেছি। প্রসঙ্গত যেকোনো পুরনো এবং ঐতিহাসিক জিনিসের চাহিদা অনেক। অনেকেরই স্বভাব রয়েছে পুরনো জিনিস সংগ্রহ করে রাখার।

তাদের জন্য আমাদের এই প্রতিবেদন সুখবর বয়ে নিয়ে আসতে চলেছে। সম্প্রতি ই-কমার্স ওয়েবসাইটে দেখা গিয়েছে বৈষ্ণ দেবীর ছবি সমেত পুরনো কয়েন থেকে প্রায় ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় হচ্ছে। যা দেখে অবাক হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনদের অনেকেই।

শুধুমাত্র এই কয়েন নয় জানা গিয়েছে, ১০০ টাকার পুরনো নোট বিক্রি করে লক্ষাধিক টাকা পর্যন্ত উপার্জন করতে পারছেন অনেকে। উপরিল্লিখিত বৈষ্ণ দেবীর ছবি খোদাই করা কয়েনটি একটি পাঁচ টাকার মুদ্রা।যদি এটি আপনার সংগ্রহে থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই অনলাইনে এটিকে বিক্রি করতে পারেন। বৈষ্ণ দেবীর ছবি থাকায় এই মুদ্রা গুলিকে অত্যন্ত শুভ বলে মনে করা হয়। আধ্যাত্বিক মানুষের জীবনে এই কয়েনগুলির চাহিদা প্রচন্ড পরিমাণে রয়েছে।২০০২ সালে ভারত সরকার এই মুদ্রা জারি করেছিল। এই মুদ্রাগুলি সাধারণত ৫ এবং ১০ টাকার হয়।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button