‘আমার একসঙ্গে চার—পাঁচ জন পুরুষ দরকার’; বিতর্কিত মন্তব্য করে শিরোনামে এলেন শ্রীলেখা!

নিজস্ব প্রতিবেদন:প্রথম থেকেই নিজের বিতর্কিত কর্মকাণ্ড এবং মন্তব্যের জন্য সংবাদ শিরোনামে রয়েছেন বামপন্থী মনোভাবাপন্ন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। একসময় অভিনয় জগতে অত্যন্ত নাম অর্জন করলেও বর্তমানে চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে অনেকটাই দূরে সরিয়ে নিয়েছেন তিনি। বেশিরভাগ সময়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে অ্যাক্টিভ থাকতে অত্যন্ত ভালোবাসেন শ্রীলেখা। ব্যক্তিগত জীবনে বহুকাল আগেই তার বিবাহ বি-চ্ছে-দ হয়ে গিয়েছে।

বর্তমানে নিজের কন্যাকে নিয়ে একাই বসবাস করেন অভিনেত্রী।অবসর সময়ে সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়াও রাজনৈতিক বিভিন্ন ক্ষেত্রে অংশগ্রহণ করতে পছন্দ করেন শ্রীলেখা। সম্প্রতি চলতি বছরের বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দিক থেকেই অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলিকে কটাক্ষ করে চলেছেন তিনি।

তারকাদের রাজনীতিতে যোগদান দেখে প্রথম দিকে তিনি সেলেবরা বিক্রি হয়ে গিয়েছে বলে মন্তব্য করেছিলেন।পরবর্তী সময়ে মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে অনেক বিরোধী দলনেতাদেরকেই তিনি নানান রকম ভাবে সমালোচনামূলক মন্তব্য করেন। সক্রিয়ভাবে রাজনীতিতে অংশগ্রহণ না করলেও বাম প্রার্থীদের প্রচারে বিভিন্ন জায়গায় দেখা যায় এই অভিনেত্রীকে। কিন্তু দিন কয়েক আগেই হঠাৎ করে একটি বিতর্কিত কথা বলে চর্চায় চলে এসেছেন তিনি।

এক ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকারে তাকে বেশ কিছু প্রশ্ন করা হয়েছিল। সেই প্রশ্নগুলোর উত্তর তিনি এমনভাবে দেন যা নেটিজেনদের বেশ অপছন্দ হয়েছে।জানা যায়,শ্রীলেখা মিত্রকে নিয়ে একটা বয়সের পুরুষ স্বপ্ন দেখে এমন একটি প্রশ্ন তিনি সংশোধন করে, উত্তরে জানালেন, একটা বয়স? ভুল বলছেন। একটা বয়সের নয়।

বিভিন্ন বয়সের পুরুষ আমাকে নিয়ে দিন-রাত স্বপ্ন দেখে।শুধু তাই নয়, শ্রীলেখার মতে যারা এই মুহূর্তে মধ্যবয়সের কোঠায় রয়েছেন, তাদের অনেকেই নাকি অভিনেত্রীকে বলেছেন তাদের বেড়ে ওঠা, সেক্সুয়ালি নিজেকে জানা, তার মাধ্যম হলাম আমি। এই ব্যাপারটিকে নিজের জন্য বিশাল বড় কমপ্লিমেন্ট বলে মনে করেন অভিনেত্রী।

পাশাপাশি বিবাহ— বিচ্ছে-দে-র পর থেকেই তিনি একা রয়েছেন। তাই যখন তাকে জীবনে পুরুষের চাহিদা সম্বন্ধে প্রশ্ন করা হয় তিনি জানান,”আমার তো একসঙ্গে চার-পাঁচ জন পুরুষ দরকার। যারা বিভিন্ন কাজ করে দেবে। একজন ফাইনান্স দেখবে। কোথায় কোথায় ইনভেস্ট করব সে সব বলে দেবে। আর একজন রোমান্টিক হবে। যে মাঝে মাঝে দু’কলি গান গেয়ে দেবে।কবিতা পড়ে দেবে। আর একজন বাজারটা করে দেবে।

আসলে একজন পুরুষের মধ্যে তো সব কিছু থাকে না। তাই ছড়িয়ে দাও ভালবাসা।আমার চারপাশে হয়তো চার-পাঁচজন পুরুষ বন্ধুকে দেখছেন। কিন্তু সত্যিই আমার কেউ নেই। তার জন্য কোনও হা-হুতাশও নেই।আমার খিদে পেলে খাব, ঘুম পেলে ঘুমবো। আবার শরীরী চাহিদা থাকলে সেটা পূরণ করব। তার জন্য প্রেম হতে হবে, এটার কোনও মানে নেই”।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button