“এক মাসের অ-ন্তঃস-ত্ত্বা আমি, এ বাচ্চার বাবা তুমি”,- কে তাহলে বাচ্চার বাবা, কি বললেন অভিনেত্রী নুসরত, ভাইরাল হলো ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহান এর নাম প্রথম থেকেই বিতর্কের সাথে জড়িয়ে রয়েছে। সম্প্রতি আবারও তাকে কেন্দ্র করে সংবাদ শিরোনাম এর পাতা সরগরম হল।প্রসঙ্গত বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই নিজের বিয়ে নিয়ে জল্পনা তৈরি করেছেন অভিনেত্রী।তার উপর আবার ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রের খবর অনুসারে জানা গিয়েছে প্রায় এক মাসের অ-ন্তঃস-ত্ত্বা তিনি। তাই স্বাভাবিকভাবেই জল্পনা ছড়াচ্ছে তার সন্তানের পিতা কে কেন্দ্র করে।

কারণ প্রায় অনেকদিন আগে থেকেই স্বামী নিখিল জৈনের বাড়ি থেকে আলাদা হয়ে গিয়েছেন নুসরাত।এই পরিস্থিতিতে অনেকেই সন্দেহ করছেন নুসরাতের হবু সন্তানের পিতা অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। এই যশ দাশগুপ্ত শুধুমাত্র একজন অভিনেতা নয় চলতি বছরে নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়ে ছিলেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এই অভিনেতার সাথেই সম্পর্কে চর্চা থাকার কারণে স্বামী নিখিলের সাথে নু-স-রা-তের সম্পর্ক অনেকটাই তলানিতে এসে ঠেকে।

এর মধ্যেই আবারও কয়েকদিন আগে ইনস্টাগ্রাম পোষ্টের মাধ্যমে নুসরাত জানিয়েছেন তার এবং নিখিলের বিয়ে আইনত বৈধ নয়।কারণ তাদের বিয়ে হয়েছিল তুরস্কে এবং হিন্দু-মুসলিম বিশেষ বিবাহ আইন অনুযায়ী এই বিয়ের কোনরকম রেজিস্ট্রেশন হয়নি। তাই স্বাভাবিকভাবে বি-চ্ছে-দে-র কোন প্রশ্নই আসে না।

এছাড়াও স্বামী নিখিলের উপর একাধিক অভিযোগ এনেছেন তিনি। জানিয়েছেন, নিখিল তার টাকার অনেকটা অংশ তছরুপ করে ফেলেছে। তবে নুসরাতের সাথে এই লিভ ইন সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুলতে চাননি নিখিল জৈন। বরং তিনি বারংবার বলেছেন নুসরাতকে বিয়ের রেজিস্ট্রেশন করার কথা বলা হলেও নায়িকা তা করাতে চাননি।

নুসরাতের আনা সমস্ত ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করে দিয়েছেন নিখিল। তবে নুসরাতের বিরুদ্ধে কোনো রকম বিষয় নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ তিনি। তাই তাদের সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।যখন 2019 সালে লোকসভা নির্বাচনে জয়লাভের পরে সাংসদ হিসেবে শ-প-থ গ্রহণ করেছিলেন তখন তিনি নিজেকে নুসরাত জাহান রুহি জৈন বলেই পরিচয় দিয়েছিলেন।

তাই অনেকের মনেই প্রশ্ন উঠছে যদি বিয়ে নাই হয়ে থাকে তবে নিখিলের পদবী ব্যবহার করেছিলেন কেন? পাশাপাশি যশ দাশগুপ্তর সাথে তার সম্পর্ক নিয়েও ক্রমাগত গুজব ছড়িয়ে পড়ছে। এমতাবস্থায় ভবিষ্যৎ কোন দিকে যাবে তা একমাত্র হয়তো বিধাতাই জানেন।আমাদের এই প্রতিবেদনটি কেমন লাগল তা জানাবে অবশ্যই ভুলবেন না। আপনার মন্তব্য আমাদের কাছে অধিক তাৎপর্যপূর্ণ।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button