কতগুলি ফোন নাম্বার যুক্ত আছে আপনার আধার কার্ডের সঙ্গে? জেনে নেই মুহূর্তের মধ্যে!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-বর্তমান সময়ে কতগুলি নথিপত্র রয়েছে যা অত্যন্ত জরুরী আমাদের এই জনজীবনে ।কিন্তু তাদের মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ একটি নথি হচ্ছে আধার কার্ড। জন্ম থেকে মৃত্যু অব্দি সব জায়গাতে এখন আধার কার্ড প্রয়োজন পড়ছে। 2014 সালের পর থেকে গোটা ভারতবর্ষের নাগরিকদের জন্য একটি নির্দিষ্ট নথিপত্র তৈরি করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার ।তাই গোটা ভারতবাসীর জন্য জারি করা হয়েছিল আধার কার্ড ।আধার কার্ড যতই তৈরি হোক না কেন তাকে ঘিরে একাধিক জালিয়াতির ঘটনা দখল করেছিল খবরের শিরোনাম। যে ঘটনাটি সবথেকে বেশি ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে সেটি হচ্ছে মোবাইল নাম্বার ।

আমরা প্রত্যেকে জানি যে আধার কার্ডের সাথে মোবাইল নাম্বার সংযুক্ত করা বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার এই মুহূর্তে কিন্তু আপনার আধার কার্ডের সাথে অন্য কোন মোবাইল নাম্বার লিঙ্ক রয়েছে কিনা সেটা আপনি জানবেন কিভাবে? যদি এমনটা না জানতে পারেন তাহলে যেকোনো ব্যক্তি আপনার আধার কার্ডের নাম্বার এ একাধিক মোবাইল নাম্বার সংযুক্ত রেখে অসামাজিক কাজকর্ম করতে পারে ।যার ফলে ভোগান্তির শিকার হতে পারেন আপনি।তাই জেনে নিন কিভাবে জানা যাবে আপনার আধার কার্ডের সাথে কতগুলো মোবাইল নাম্বার সংযুক্ত রয়েছে

আধার কার্ডের সাথে মোবাইলের লিংক রয়েছে কি-না সে বিষয়ে জানা যাবে এখন বাড়িতে বসে । আমরা জানি যে আমরা যত বয়সে বড় হতে থাকি ততই বাড়তে থাকে আমাদের সাথে নথিপত্রের সংখ্যা। বয়স বাড়ার সাথে সাথে বাড়তে থাকা একটি পত্র গুলী অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জীবনের প্রতিটি মুহূর্তে কিন্তু বর্তমান প্রজন্মের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ নথি হলো আধার কার্ড ।কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে এই ধরনের একটি ঘোষণা করা হয়েছিল যে প্রতি দেশবাসীর কাছে একটি করে আধার কার্ড থাকবে এবং সে আধার কার্ড টি হবে তার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এবং প্রমাণপত্র

Telecom analytics for fraud management and consumer protection (TAFCOP) এর পোর্টাল এ গিয়ে আপনার অ্যাক্টিভ মোবাইল নাম্বার দিন।
২)তারপর request OTP অপশন ক্লিক করুন।
৩)তারপর আপনার মোবাইল নম্বরে আসা OTP ইনপুট করে Validate অপশন ক্লিক করুন।
৪)তারপরেই আপনি এই পোর্টালে আপনার আঁধারের সাথে লিংক থাকা সব মোবাইল নম্বর দেখতে পাবেন।এবং এখান থেকে দেখি আপনি বুঝতে পারবেন যে যে মোবাইল নাম্বারটা আপনার দরকার নেই সেটি আপনি ব্লক করে দিতে পারেন বা মুছে দিতে পারেন ।।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button