ভয়ঙ্কর দৃশ্য! স্কুটির ভেতর থেকে ফনা তুলে বেরিয়ে আসছে বিশাল কোবরা সাপ! ঝড়ের বেগে ভাইরাল হলো ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন:- আগেকার যুগে মানুষরা দেশ বিদেশের খবর জানার জন্য অপেক্ষা করত রেডিওর উপর। সময়ের সাথে সাথে রেডিওর প্রচলনের পাশাপাশি শুরু হয়েছিল টিভি প্রচলন । তখন মানুষ নির্ভরশীল হয়ে পড়েছিল টিভির উপর ।যেকোনো ধরনের খবর সবার আগে জানার জন্য টিভি পর্দায় চোখ রাখত । কিন্তু যত সভ্যতা ও উন্নতির দিকে এগোচ্ছে ততোই পাল্টাচ্ছে সমাজের চিত্র ।

সেই অর্থে টিভির পরিবর্তে এখন মানুষ সোশ্যাল মিডিয়াতে মুখ গুঁজে । কারণ সোশ্যাল মিডিয়া মানেই নতুন প্রজন্মের কাছে আলাদা পৃথিবী । এই পৃথিবীতে পাওয়া যায় না এমন কোন জিনিস নেই । সবকিছু এক ছাদের তলায় যেহেতু পাওয়া যায় তাই প্রতিনিয়ত সোশ্যাল মিডিয়া জনপ্রিয় হচ্ছে আমাদের এই জীবনে ।

এর পাশাপাশি জঙ্গলে থাকা সাপকে আমরা প্রত্যেকে ভয় পাই । শুধুমাত্র সাপুড়ে ছাড়া সাপ যে কাউকে ভয় দেখাতে পারে । ভারতে বিভিন্ন প্রজাতির সাপ রয়েছে এবং কখনও কখনও সেগুলি বি সহীন হলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিষযুক্ত । এবং সাপের এক ছোবলে জীবন থমকে যেতে পারে । আগেকার যুগে গ্রামগঞ্জে এ ধরনের ঘটনা প্রায়ই দেখা যেত । কারন তখন ছিল না উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা বা চিকিৎসাব্যবস্থা । কিন্তু বর্তমানে উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা এবং চিকিৎসা ব্যবস্থার দরুন সেই সংখ্যা অনেক কমে এসেছে ।

মাঝেমধ্যে সাপের নিয়ে যাবতীয় ভিডিও ভাইরাল হতে দেখি আমরা সোশ্যাল মিডিয়াতে । কখনো দেখি যে বাড়ির বিছানার মধ্যে লুকিয়ে রয়েছে বিষাক্ত সাপ বা কখনো আবার দেখি বাথরুমে মধ্যে লুকিয়ে রয়েছে । তবে এই সমস্ত ঘটনার পাশাপাশি যে ঘটনাটি ভাইরাল হয়েছে সেটি কিছুটা হলেও আলাদা । আলাদা এই কারণেই কারণ এবারে কোনো বাড়ি নয় বরং পার্কিং লটে পাওয়া গেল বিষাক্ত কিং কোবরা ।

সম্প্রতি একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে এবং বলাবাহুল্য ভাইরাল হয়েছে । সেখানে দেখা যাচ্ছে যে একটি এলাকার গাড়ির হ্যান্ডেল এর মধ্যে ঘাপটি মেরে বসে রয়েছে একটি কিং কোবরা । সেটি দেখতে পাই গাড়িচালক এবং তৎক্ষনাত খবর দেয় এক সাপুড়ে কে । সে অনেক কষ্ট করে গাড়ির বনেট খুলে সাপটিকে উদ্ধার করতে পেরেছে । পরবর্তী ক্ষেত্রে সেই সাপটি কালো রংয়ের পাত্রে ভরে নিয়ে চলে গেছে অন্য কোন একটি নিরাপদ জায়গায় তাকে মুক্ত করবে বলে । এই ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে নেট পাড়াতে এবং ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button