ধীরে ধীরে কমছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর সম্পত্তির পরিমাণ! জানুন বর্তমানে কতগুলি সম্পত্তির মালিক তিনি!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-বর্তমানে এমনটা মনে করা হচ্ছে যে রাজনীতি হচ্ছে অন্যতম একটি ক্যারিয়ার । যে সমস্ত মানুষরা আর্থিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়ছে সেই সমস্ত মানুষরা রাজনীতি করে বিপুল অঙ্কের সম্পত্তির পরিমাণ বৃদ্ধি ঘটাতে পারে । কিন্তু এই ঘটনাকে সম্পূর্ণ ভুল বা মিথ্যা প্রমাণ করে দিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হলফনামা ।

একদমই ঠিক শুনেছেন নির্বাচন কমিশনকে দেওয়া তথ্য অনুসারে ২০১৬ তুলনায় ২০২১ এ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় অর্ধেকের কাছাকাছি নেমেছে । যেখানে অন্যান্য নেতা মন্ত্রীরা তাদের সম্পত্তির পরিমাণ বাড়িয়ে চলেছে সেখানে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হয়ে সম্পত্তির পরিমাণ কিভাবে অর্ধেক হয় সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিরোধী নেতারা।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজ্যের সমস্ত বাসিন্দাদের জন্য একাধিক প্রকল্প সূচনা করেছে যে প্রকল্পের আওতায় এসে সাধারণ মানুষরা উপকৃত হয়েছে । কিন্তু সেটা রাজ্য সরকারের তরফ থেকে নেওয়া কর্মসূচি । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যক্তিগত সম্পত্তি থেকে কোনকিছুই দেওয়া হয় না । তবুও কিভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর্থিক পরিমান কমে যাচ্ছে সে বিষয়ে থাকছে অনেক প্রশ্ন । ২০১৬ সালে বিধানসভা নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনকে দেওয়া তথ্য অনুসারে এমনটা জানা যাচ্ছে যে বর্তমান সময়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনেকটাই কমে গিয়েছে ।

২০১৬ সালে নির্বাচন কমিশনকে দেওয়া তথ্য অনুসারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নগদ সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ৩০ লক্ষ্যের উপর কিন্তু ২০২১ এ হলফনামা অনুযায়ী সম্পত্তির পরিমাণ দাঁড়ায় ১৬ লাখ এর কাছাকাছি অর্থাৎ ১৪ লক্ষ্যের ঘাটতি দেখা গেছে তার সম্পত্তিতে । এছাড়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন তার ব্যাঙ্কে থাকা অর্থের পরিমাণ ১৩.৫৩ লক্ষ টাকা। অন্যান্য ক্ষেত্রে বিনিয়োগ এবং গয়নার পরিমান যথাক্রমে ১৮,৪৯০ টাকা এবং ৪৩,৮৩৭ টাকা।

নিজের হাতে থাকা নগদ টাকার পরিমাণও নিয়ম অনুযায়ী হলফনামায় উল্লেখ করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। জানা যাচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বর্তমানে তার হাতে নগদ রয়েছে ৬৯,২৫৫ টাকা।২০১৬ সালের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের হলফনামা অনুযায়ী হাতে থাকা নগদের পরিমাণ ছিল ১৮,৪৩৬ টাকা। তিনটি ব্যাঙ্কে রাখা অর্থের পরিমাণ ছিল ২৭ লক্ষ ৬১ হাজার ৪৩১ টাকা।এনএসএস, পোস্টাল সেভিংস এই সকল খাতে বিনিয়োগের পরিমাণ ছিল ১৮ হাজার ৪৯০ টাকা। গয়নার ক্ষেত্রে মোট বিনিয়োগ ছিল ২৬ হাজার ৩৮০ টাকা। পাশাপাশি অন্যান্য সম্পত্তির পরিমাণ ছিল টাকার হিসেবে ২ লক্ষ ১৫ হাজার ৮৮ টাকা।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button