সুখবর রাজ্যবাসীর জন্য! কেরোসিন তেলের বন্টন সংক্রান্ত নয়া নীতি আনতে চলেছে রাজ্য! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-প্রতিনিয়ত রাজ্য সরকার এমন কিছু ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করছে যার ফলে উপকৃত হচ্ছেন রাজ্যের সাধারণ রাজ্যবাসী রা। কারণ আমাদের রাজ্যে এমন বহু মানুষ রয়েছে যারা অত্যন্ত গরীব ও দুস্থ ।তাদের কথা চিন্তা করে এবার সমাহারে রেশন বন্টন এর কথা ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। মূলত এই রেশন দ্রব্য হিসেবে কে প্রাধান্য দিয়েছে রাজ্য সরকার।রাজ্যের সমস্ত রেশন গ্রাহকদের সমহারে কেরোসিন দেওয়ার ব্যাপারে বিশেষ কমিটির বৈঠকে জানতে চাওয়া হয়েছিল মতামত।

প্রতিনিয়ত যেভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়ে চলেছে তাতে রীতিমতো জর্জরিত হয়ে পড়েছে সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষেরা। এমতাবস্থায় দাঁড়িয়ে কিভাবে এই অবস্থা থেকে রেহাই মিলবে তার পথ খুঁজে পাচ্ছে না কেউ পেট্রোল-ডিজেল থেকে শুরু করে রান্নার গ্যাস এমনকি নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম আকাশছোঁয়া ।এই আবহের মধ্যে হোলসেলার এবং ডিলারদের সংগঠনের পক্ষ থেকে রাজ্যের সমস্ত গ্রাহকদের সমহারে কেরোসিন দেওয়ার বিষয়টিতে সায় দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

রাজ্যে এখন যে বন্টন রীতি রয়েছে তাতে শুধুমাত্র রাজ্যের রেশন গ্রাহকদের কেরোসিন দেওয়া হয়, যার ফলে সমস্ত রেশন গ্রাহকরা সমহারে কেরোসিন পেতে পারেন না‌। যেমন জঙ্গলমহলে গ্রাহক কিছু মাসে 1 লিটার করে কেরোসিন প্রদান করা হয় এছাড়া বাকি সমস্ত জায়গায় ডিজিটাল রেশন কার্ডে 500 মিলিলিটার করে কেরোসিন বরাদ্দ করা হয়।কাগজের রেশন কার্ড থাকলে 150 মিনিট লিটার কেরোসিন বরাদ্দ করা হয়।

অনেকেই রয়েছেন তারা খুবই দুঃস্থ, এবং গ্যাসের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার জন্য গ্যাস সিলিন্ডার কিনতে অপারগ , তারা অনেকটাই কেরোসিন তেলের ওপর নির্ভর করে দিনাতিপাত করেন। তাই যাদের রেশন কার্ড নেই তাদের জন্য বিশেষ পারমিট যাতে প্রদান করা হয় সেই বিষয়েও আলোচনা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button