এসে গেছে ঘূ-র্ণিঝ-ড় “যশ”,বাংলার যে যে জেলায় বেশি তা-ণ্ড-ব চা-লাতে পারে এই ঝড়, রইলো সূচি!

নিজস্ব প্রতিবেদন:দিন কয়েক আগেই ভারতের বেশ কয়েকটি উপকূলীয় অঞ্চলে তা-ন্ড-ব চালিয়ে গিয়েছে তাউটে নামক একটি ঘূর্ণিঝড়।সম্প্রতি আবারও এই পরিস্থিতিতে বাংলা সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যের প্রভাবাধীন হতে চলেছে আর একটি মা-রা-ত্মক ঘূর্ণিঝড়। আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে এই ঘূ-র্ণিঝ-ড়ের নাম রাখা হয়েছে “যশ”। ইতিমধ্যেই দিন দুয়েক আগে ওড়িশার বালেশ্বর উপকূলে আছড়ে পড়েছে এই ঘূর্ণিঝড়।২৩ মে থেকেই আন্দামান এবং তার আশপাশে বঙ্গোপসাগরীয় এলাকায় ৪৫-৫৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় ঝোড়ো হাওয়া বইতে শুরু হয়ে গিয়েছিল।

এই পরিস্থিতিতে ঘূ-র্ণিঝ-ড়ে-র প্রভাবে বাংলাদেশ এবং ওড়িশা উপকূলেও ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত, ইতিমধ্যেই প্রায় ১ কোটি মানুষ এই বিপর্যয়ের ফলে দু-র্গ-ত হয়ে পড়েছেন। তবে সাইক্লোন সেন্টার তৈরি করে অনেক মানুষকে প্রাণে বাঁচানো সম্ভব হয়েছে। শুধুমাত্র তাই নয় প্রায় তিন লাখ এর কাছাকাছি ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই ঘূ-র্ণি-ঝড়ের ফলে।

তান্ডব কিছুটা কমে আসলেও এখনো বাংলার বিভিন্ন জায়গায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জানানো হয়েছে।সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ঘূ-র্ণি-ঝড় সংক্রান্ত বেশ কয়েকটি ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা গিয়েছে। যে সব ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ঝড়ের তা-ন্ড-ব মানুষের জীবনকে মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করে দিয়েছে।

কাঁচা বাড়ি থেকে শুরু করে বড় বড় গাছ এক ধাক্কাতেই মাটিতে শুয়ে পড়েছে। এইসব ফটো এবং ভিডিওগুলি দেখে অবাক হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনরা। অনেকেই ঈশ্বরের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছেন দুর্গত মানুষদের সাহায্যের জন্য। অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এগিয়ে আসলেও এখনো পর্যন্ত এই সমস্যা থেকে সম্পূর্ণরূপে মোকাবিলা করা সম্ভব হয়নি।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button