বাড়িতেই দারুন এই পদ্ধতিতে মাত্র এক মাসের মধ্যেই হাত করুন দারুণ টানটান ও অল্প বয়সী তরুণীদের মতো, রইলো পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন:আমরা যেমন নিয়মিতভাবে আমাদের মুখের যত্ন নিয়ে থাকি, ঠিক তেমনভাবেই অবশ্যই হাত এবং পায়ের যত্ন নেওয়ার প্রয়োজন আছে।কারণ অনেক ক্ষেত্রেই অন্যান্য অঙ্গের যত্ন নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা নেই এটা ভেবে আমরা এড়িয়ে চলি। এটি কিন্তু একেবারেই উচিত নয়।

তাই আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন এর মাধ্যমে আমরা এমন কিছু পদ্ধতি আলোচনা করব যার মাধ্যমে খুব সহজেই হাত এবং পা অল্প বয়সী যুবতীদের মত সুন্দর অবস্থায় রাখা যাবে। কোনরকম বয়সের ছাপ এতে পড়বে না। পাশাপাশি অন্যান্য সমস্যাও দূর হয়ে যাবে। তাহলে আসুন দেরি না করে শুরু করা যাক।

প্রথমেই আমরা এই প্রসঙ্গে বলবো গাজর তেলের কথা। এক্ষেত্রে একটি গাজর নিয়ে উপরের ছাল অংশটি ছাড়িয়ে নিন। এরপর একটি ছোট কৌটো বা বাটির মধ্যে কিছুটা পরিমাণ নারকেল তেল নিয়ে নিন। এরপর আগে থেকে ছাড়িয়ে রাখা গাজরের খোসা ওই তেলের মধ্যে ঢেলে দিন। এরপর একটি বাটিতে বেশি করে জল গরম করুন। ওই গরম জলের মধ্যে কিছুক্ষণ কৌটোটিকে ডুবিয়ে রাখুন।

এরপর মিনিট পাঁচেক পর কৌটো টিকে তুলে কোন ঠান্ডা জায়গায় সংগ্রহ করে রাখুন। দুই সপ্তাহ পর ব্যবহার করা শুরু করতে পারেন। দ্বিতীয় পদ্ধতি হিসেবে কিছু পরিমাণ আমন্ড নিয়ে নিন।মাঝ বরাবর এই ড্রাই ফুড গুলিকে কেটে নিয়ে কড়াইতে নারকেল তেল গরম করে তার মধ্যে দিয়ে দিন।এবার ওই তেলটিকে একটি ভালো জায়গায় সংরক্ষন করে রেখে নিয়মিত হাতে এবং পায়ে ব্যবহার করুন।

তৃতীয় পদ্ধতি হিসেবে আমরা বলব প্রাচীনকাল থেকে চলে আসা সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য ব্যবহৃত হলুদের কথা।এর জন্য একটি বাটিতে একটুকরো অ্যালোভেরা জেলের মধ্যে সামান্য পরিমাণে হলুদ গুঁড়ো দিয়ে দিন। ভালো করে সমগ্র উপকরণগুলিকে মিশিয়ে নিন। নিয়মিত এই জেলটিকে হাতে ব্যবহার করুন।

দেখবেন খুব সহজেই আপনার হাত এবং পা হয়ে উঠবে অল্প বয়সী মানুষের মতো নরম এবং কোমনীয়। এমনকি হাত এবং পায়ে ছাল ওঠার মতো কোন সমস্যা থাকলে তাও দূরীভূত হয়ে যাবে।তাহলে আমাদের এই প্রতিবেদনটি আপনার কতটা কাজে লাগলো তা একটি ছোট্ট মন্তব্যের মাধ্যমে জানাতে অবশ্যই ভুলবেন না।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button