বাড়িতে বসে খুব সহজেই চেক করুন আপনার আধার কার্ডের সঙ্গে কতগুলি মোবাইল নম্বর যুক্ত রয়েছে! রইল সহজ পদ্ধতি।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-প্রতিনিয়ত বাড়তে থাকা এই জনবিন্যাস মানুষের পরিচয় পত্র সঠিকভাবে খুঁজে পাওয়ার এক অন্যতম নথি হল আধার কার্ড । ভারত সরকার এই আধার কার্ড সকল দেশবাসীর জন্য চালু করেছিল ২০১৪ সালের পর থেকে ।। ই আধার কার্ডের মাধ্যমে আপনি যাবতীয় নথিপত্র তৈরি করতে পারবেন । তার পাশাপাশি যেকোনো জায়গায় যে কোন কাজ করতে গেলে প্রয়োজন পড়বে এই আধার কার্ডের ।

এই মুহূর্তে আধার কার্ডের সাথে প্যান কার্ড ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট এমনকি মোবাইল নাম্বার লিঙ্ক করার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে বহুদিন ধরে । কিন্তু আপনার আধার কার্ডের সাথে অতিরিক্ত আর কতগুলি মোবাইল নাম্বার লিঙ্ক রয়েছে সেটি যেন আপনার জরুরি । কারণ যদি আপনি নটার বেশি মোবাইল লিংক করে রাখেন তাহলে কিন্তু সেটি বাণিজ্যিক কাজের ক্ষেত্র হিসেবে গণ্য করা হবে ।

তাই অতি অবশ্যই জানা দরকার আপনার আধার কার সাথে কতগুলি মোবাইল নাম্বার লিঙ্ক করা রয়েছে ।যদি অতিরিক্ত পরিমাণে লিংক থাকে যেগুলো আপনি ইচ্ছাকৃতভাবে করেননি তাহলে সেক্ষেত্রে আপনি সেই সমস্ত নাম্বারগুলো ব্লক করে দিতে পারবেন এবং নতুন নাম্বার সংযোজন করতে পারবেন । আসুন জেনে কিভাবে করা সম্ভব ।।

আধার কার্ডের সাথে মোবাইলের লিংক রয়েছে কি-না সে বিষয়ে জানা যাবে এখন বাড়িতে বসে । আমরা জানি যে আমরা যত বয়সে বড় হতে থাকি ততই বাড়তে থাকে আমাদের সাথে নথিপত্রের সংখ্যা। বয়স বাড়ার সাথে সাথে বাড়তে থাকা একটি পত্র গুলী অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জীবনের প্রতিটি মুহূর্তে কিন্তু বর্তমান প্রজন্মের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ নথি হলো আধার কার্ড ।কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে এই ধরনের একটি ঘোষণা করা হয়েছিল যে প্রতি দেশবাসীর কাছে একটি করে আধার কার্ড থাকবে এবং সে আধার কার্ড টি হবে তার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এবং প্রমাণপত্র ।

Telecom analytics for fraud management and consumer protection (TAFCOP) এর পোর্টাল এ গিয়ে আপনার অ্যাক্টিভ মোবাইল নাম্বার দিন।

২)তারপর request OTP অপশন ক্লিক করুন।

৩)তারপর আপনার মোবাইল নম্বরে আসা OTP ইনপুট করে Validate অপশন ক্লিক করুন।

৪)তারপরেই আপনি এই পোর্টালে আপনার আঁধারের সাথে লিংক থাকা সব মোবাইল নম্বর দেখতে পাবেন।এবং এখান থেকে দেখি আপনি বুঝতে পারবেন যে যে মোবাইল নাম্বারটা আপনার দরকার নেই সেটি আপনি ব্লক করে দিতে পারেন বা মুছে দিতে পারেন ।।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button